default-image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আবারও বাড়ছে স্পেনে। এই ভাইরাসের সংক্রমণ কমাতে দেশটিতে আবারও জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে এবং রাতের বেলা কারফিউ জারি করা হয়েছে।
যুক্তরাজ্যের গণমাধ্যম বিবিসি ও বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, আজ রোববার স্পেনের প্রধানমন্ত্রী পেদ্রো সানচেজ এই ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি বলেন, রাত ১১ থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত এই কারফিউ কার্যকর থাকবে। আজ রোববার থেকেই নতুন এই বিধি কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।
সানচেজ বলেন, যে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে তার মেয়াদ ১৫ দিন থেকে ছয় মাস পর্যন্ত বাড়াতে পার্লামেন্টের কাছে আবেদন করবেন তিনি। তিনি বলেন, দেশের পরিস্থিতি খুব খারাপের দিকে যাচ্ছে। রোববার জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া ভাষণে তিনি বলেন, গত ৫০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছে তাঁর দেশ।

বিজ্ঞাপন

স্পেনে করোনাভাইরাসের সংক্রমণের প্রথম ধাক্কা মোকাবিলার জন্যও গত এপ্রিলে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছিল। পরে গ্রীষ্মে এই জরুরি অবস্থা প্রত্যাহার করা হয়। আবারও জরুরি অবস্থা জারির ফলে বেশ কিছু সুবিধা পাবে আঞ্চলিক সরকারগুলো। এর ফলে তারা ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারবে তারা। এ ছাড়া জনসমাগমের ওপর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করতে পারবে স্থানীয় সরকার। তবে এ ধরনের কী কী কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে সেই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন আঞ্চলিক নেতারা। জানা গেছে, স্বাস্থ্য বিভাগের চাহিদার কথা বিবেচনা করে মানুষের চলাচলের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হতে পারে।
স্পেন করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় জনসমাগমের ওপর নিয়ন্ত্রণ আরোপ করা হয়েছে। সরকারি বিধি অনুসারে, যে কোনো সরকার কিংবা বেসরকারি অনুষ্ঠানে ছয়জনের বেশি মানুষ জড়ো হতে পারবে না।

মন্তব্য পড়ুন 0