default-image

করোনাভাইরাস থেকে সুস্থ হওয়ার পরও অনেকে ঘ্রাণশক্তি ফিরে পাচ্ছেন না। তাঁদের চিকিৎসায় স্টেরয়েড ব্যবহার না করে ‘স্মেল ট্রেনিং’-এর পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

এই প্রক্রিয়ায় রোগীকে কয়েক মাস ধরে বিভিন্ন ধরনের গন্ধ শুঁকতে হবে। মস্তিষ্ক যাতে আবারও নানা ধরনের ঘ্রাণ শনাক্ত করতে পারে, সে জন্য এই কাজ করতে হবে।

এই ‘স্মেল ট্রেনিং’ সহজ ও সাশ্রয়ী বলে একদল বিশেষজ্ঞ অভিমত দিয়েছেন বলে বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। তাঁরা বলছেন, স্টেরয়েডে যেমন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া রয়েছে, তা এই প্রক্রিয়ায় নেই।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, করোনাভাইরাসের সাধারণ উপসর্গগুলোর মধ্যে জ্বর ও কাশির সঙ্গে স্বাদ-গন্ধ হারানোর বিষয়ও রয়েছে। অধিকাংশের ক্ষেত্রে সেরে ওঠার পরপরই ঘ্রাণশক্তি ফিরে আসে। তবে প্রতি পাঁচজনে একজন বলেছেন, অসুস্থ হওয়ার আট সপ্তাহ পরও ঠিকমতো ঘ্রাণ পাচ্ছেন না তাঁরা।

বিজ্ঞাপন

করোনায় আক্রান্ত মানুষের ঘ্রাণশক্তি ফেরানোর জন্য চিকিৎসকেরা করটিকোস্টেরয়েড নামে পরিচিত ওষুধ সেবনের পরামর্শ দিচ্ছেন। শরীরে প্রদাহ কমাতে ব্যবহৃত এই ওষুধ শ্বাসকষ্টের রোগীদের চিকিৎসায়ও ব্যবহৃত হয়।

তবে যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব ইস্ট অ্যাঙ্গিলার নরউইচ মেডিকেল স্কুলের অধ্যাপক কার্ল ফিলপট বলছেন, ঘ্রাণশক্তি হারানোর চিকিৎসায় করটিকোস্টেরয়েডের উপকারিতার প্রমাণ খুব একটা নেই। তারপর সেগুলোর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ঝুঁকিও রয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমাদের পরামর্শ হচ্ছে, ভাইরাস সংক্রমণ থেকে সেরে ওঠার পর ঘ্রাণ হারানোর চিকিৎসায় এগুলো সেবন করতে না বলা।’

স্টেরয়েডের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার মধ্যে হাত-পা ফুলে যাওয়া, উচ্চ রক্তচাপ এবং আচরণগত পরিবর্তন দেখা দিতে পারে।

ইন্টারন্যাশনাল ফোরাম অব অ্যালার্জি অ্যান্ড রাইনোলোজি সাময়িকীতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে গবেষকেরা কোভিড-১৯ থেকে সেরে ওঠা লোকজনের ঘ্রাণশক্তি ফেরানোর জন্য স্টেরয়েড ব্যবহারের বদলে ওই ‘স্মেল ট্রেনিংয়ের’ পরামর্শ দিয়েছেন।

তাঁদের পরামর্শ অনুযায়ী, ভিন্ন ভিন্ন গন্ধ রয়েছে এমন চারটি জিনিস এই রোগীদের শুঁকতে দিতে হবে। সেগুলোর গন্ধ হবে পরিচিত ও সহজে শনাক্ত করার মতো। যেমন কমলা, রসুন, পুদিনা ও কফি কয়েক মাস ধরে দিনে দুবার করে শুঁকতে দেওয়া যেতে পারে।

অধ্যাপক ফিলপট বলেন, গবেষণায় দেখা গেছে কোভিড থেকে সেরে ওঠার ছয় মাস পরে ৯০ শতাংশ মানুষ এমনিতেই ঘ্রাণশক্তি পুরোপুরি ফিরে পেয়েছেন। যদি না ফেরে, তাহলে তাঁদের জন্য ‘স্মেল ট্রেনিং’ সহায়ক হবে।

বিজ্ঞাপন
বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন