default-image

একটি ছোট মানি প্ল্যান্টের দাম কত হতে পারে? অনুমান করেন তো! কথায় আছে শখের তোলা আশি টাকা! হুম্, নিউজিল্যান্ডে চার পাতার ছোট্ট একটি মানি প্ল্যান্টের দাম উঠেছে বাংলাদেশি মুদ্রায় চার লাখ ৬৪ হাজার টাকা।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, রেপিডোপোরা টেটরাসপেরমা বা পিলোডেনড্রোন মিনিমা গোত্রের ওই মানি প্ল্যান্টটি পাতার রঙের কারণে দুর্লভ। এর প্রতিটি পাতা লম্বালম্বিভাবে সবুজ ও হলুদ রঙে বিভক্ত।

বিজ্ঞাপন

মূলত নিউজিল্যান্ডের অনলাইন বেচাকেনার সাইট ‘ট্রেড মি’-তে মানি প্ল্যান্টটির নিলাম হয়।

সর্বোচ্চ দরদাতা এর দাম দিয়েছেন ৮ হাজার ১৫০ ‘নিউজিল্যান্ড ডলার’। প্রতি ডলার ৫৬ টাকা ৯৫ পয়সা হিসাবে বাংলাদেশে এর মূল্যমান দাঁড়ায় ৪ লাখ ৬৪ হাজার ১৩১ টাকা।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানিয়েছেন, বৈচিত্র্যপূর্ণ এই মানি প্ল্যান্টগুলো যতটা না দুর্লভ, তার চেয়ে বেশি হলো এদের বেড়ে ওঠার গতি অত্যন্ত ধীর।

মানি প্ল্যান্টটির ক্রেতা রেডিও নিউজিল্যান্ডকে বলেছেন, তাঁরা তিনজন মিলে একটি গ্রীষ্মমণ্ডলীয় উদ্যান করছেন। তাঁরা চাচ্ছেন তাঁদের বাগানে নিউজিল্যান্ডের সব দুর্লভ গাছের উপস্থিতি থাক। তাঁদের বাগানের মাঝখানে থাকছে পাখি ও প্রজাপতির ঘর সংবলিত রেস্তোরাঁ। তাঁদের আশা এই উদ্যানের মধ্যে একটি স্বর্গীয় পরিবেশ বিরাজ করবে।

বিজ্ঞাপন
বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন