বিভিন্ন টেলিভিশনের সরাসরি সম্প্রচার করা ভিডিওতে ওই ব্যক্তিকে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করতে দেখা গেছে। এছাড়া নিউইয়র্ক পুলিশ এক টুইট বার্তায় জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি এখন হেফাজতে রয়েছে এবং সাধারণ মানুষের জন্য কোনো হুমকি নেই।

এই ঘটনার প্রতিক্রিয়ায় বৃহস্পতিবার জাতিসংঘ সদরদপ্তর সাময়িকভাবে লকডাউন করে রাখা হয়েছিল। আত্মসমর্পণের আগে, অস্ত্রধারী ব্যক্তি ফুটপাতে বেশ কয়েকটি নোটবুক রেখে গেছেন, যেগুলো নিউইয়র্ক পুলিশ সংগ্রহ করেছে।

নিউইয়র্ক পুলিশের একজন মুখপাত্র বলেছেন, ওই এলাকা থেকে যানবাহন সরিয়ে নেওয়ার সময়, পুলিশ লোকটির সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছিল। আপাতদৃষ্টিতে ওই ব্যক্তির বয়স ষাটের কাছাকাছি বলে মনে করছে পুলিশ।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে জাতিসংঘের একজন কর্মকর্তা বলেন, জাতিসংঘের সদর দপ্তরের সামনের প্রবেশপথে ওই ব্যক্তি আত্মহত্যার হুমকি দিয়েছিলেন। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ছবিতে দেখা গেছে সশস্ত্র পুলিশ ওই ব্যক্তিকে ঘিরে রেখেছেন। তিনি দীর্ঘ সময় ধরে অস্ত্র হাতে ফুটপাতে হাঁটছিলেন।

এর আগে জাতিসংঘ বলেছিল, এলাকাটি সুরক্ষিত থাকায় জাতিসংঘের কোনো কর্মী বা সহযোগী বিপদে নেই। এই ঘটনায় জাতিসংঘের বৈঠকও বাধাগ্রস্ত হয়নি।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন