default-image

মার্কিন বহুজাতিক ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ফাইজার তাদের তৈরি করোনা টিকার জরুরি ভিত্তিতে অনুমোদনের জন্য আজ শুক্রবার আবেদন করবে। এই টিকা তৈরিতে তাদের সঙ্গে কাজ করছে জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেক। যুক্তরাষ্ট্রের খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের (এফডিএ) কাছে এ আবেদন করা হবে। তারাই সিদ্ধান্ত নেবে বাজারে ছাড়ার জন্য নিরাপদ কি না। আজ বিবিসির খবরে এ তথ্য জানানো হয়।

এফডিএ অনুমোদনের জন্য পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে কত দিন সময় নেবে, তা নিশ্চিত নয়। তবে মার্কিন সরকার আশা করছে, আগামী ডিসেম্বরের ১৫ তারিখের মধ্যেই এই টিকার অনুমোদন মিলবে।

ফাইজার বলছে, তাদের সর্বশেষ ধাপের পরীক্ষায় দেখা গেছে এই টিকা কোভিডের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ৯৫ শতাংশ কার্যকর। তবে ৬৫ বছরের বেশি বয়সীদের ক্ষেত্রে ৯৪ শতাংশ কার্যকর।

এরই মধ্যে যুক্তরাজ্য এই টিকার চার কোটি ডোজের জন্য আগাম অর্ডার দিয়ে রেখেছে। দেশটি এ বছরের শেষ নাগাদ এক কোটি টিকা পেতে পারে।

বিজ্ঞাপন

আগামী মাসের প্রথমার্ধে অনুমোদন পাওয়া গেলে ফাইজার ও বায়োএনটেক ‘কয়েক ঘণ্টার মধ্যে প্রার্থীদের টিকা সরবরাহ’ করতে পারবে বলে জানিয়েছে। ১০ মাসের মধ্যে এই টিকা তৈরি একটি মাইলফলক। যুক্তরাষ্ট্রে টিকা তৈরির এই পর্যায়ে পৌঁছাতে গড়ে প্রায় আট বছর সময় লেগে যায়।

ফাইজারের প্রধান নির্বাহী আলবার্ট বোরলা গতকাল বৃহস্পতিবার বলেন, জরুরি চিকিৎসায় ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা পূরণের বিষয়টি ‘বিশ্বকে কোভিড-১৯ টিকা সরবরাহের যাত্রায় আমাদের গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক’।

মন্তব্য পড়ুন 0