বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, বছরের পর বছর ধরে নিকারাগুয়ার শাসনক্ষমতায় থাকা ওর্তেগা-মুরিল্লো সরকার দেশের গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলো ভেঙে দিয়েছে। দুর্নীতি ও দায়মুক্তির সংস্কৃতিকে প্রশ্রয় দিয়েছে তারা।

বিবৃতি অনুযায়ী, অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের ব্যবস্থা না করার প্রতিক্রিয়ায় নিকারাগুয়ার পাবলিক মিনিস্ট্রি এবং দেশটির ৯ জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মার্কিন ট্রেজারি ডিপার্টমেন্ট। সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বী প্রেসিডেন্ট প্রার্থী, নাগরিক সমাজ ও বেসরকারি খাতের নেতা, শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের গ্রেপ্তারে পাবলিক মিনিস্ট্রি প্রাথমিক ভূমিকা পালন করে থাকে।

নিকারাগুয়ার যে ৯ জনের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে, তাঁদের মধ্যে সরকারের বর্তমান ও সাবেক কর্মকর্তারা রয়েছেন। ২০০৭ সালের ১০ জানুয়ারির পর থেকে যাঁরা নিকারাগুয়া সরকারের কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন কিংবা আছেন তাঁদের ওপর এ নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়। মার্কিন সরকারের অভিযোগ, এই ৯ জন কর্মকর্তা দমন-পীড়ন চালাতে ও মানবাধিকার লঙ্ঘনে ওর্তেগা-মুরিল্লো সরকারকে সহযোগিতা করেছেন।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের ওই বিবৃতিতে নিকারাগুয়াকে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার জন্য আহ্বান জানানো হয়। এ ছাড়া রাজনৈতিক বন্দীদের অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি প্রদানেরও আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন