বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

ভিডিওটি শেয়ার করে অ্যাচিসন লিখেছেন, ব্রিটিশ কলম্বিয়ার স্কোয়ামিশ শহরের শ্যানন জলপ্রপাতের কাছে ঘটনাটি দেখা গেছে। এটি একটি বিরল ঘটনা। চোখের সামনেই পানির প্রবাহ উধাও হয়ে গেল।

এদিকে ভিডিওটি আদৌ সত্যি কি না, তা নিয়ে অনেকেই সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। এর জবাবও দিয়েছেন অ্যাচিসন। তিনি বলেন, ‘হাতে গোনা কয়েকজন মনে করেছেন, এটি ভুয়া ভিডিও। তাঁদের মতে, উল্টো দিক দিয়ে ভিডিওটি চালিয়ে প্রকাশ করা হয়েছে। অবশ্যই এমনটি হয়নি। ঘটনা এমন হলে আমি কখনোই তা প্রকাশ করতাম না।’

এখন পর্যন্ত ভিডিওটি আট লাখবারের বেশি দেখা হয়েছে। তাক লাগানো ঘটনাটি দেখে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন অনেকেই। একজন তো বলেছেন, এমন কিছু ঘটতে পারে, তা আদতেই জানতেন না। তবে এটি তাঁর কাছে অসাধারণ লেগেছে।

কেন এমন ঘটনা, তার জবাবও মিলেছে। ব্রিটিশ কলম্বিয়ার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম ডেইলি হাইভ বলছে, গত ২৭ ডিসেম্বর স্কোয়ামিশ শহরের তাপমাত্রা ছিল মাইনাস ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সেখানে এটি এখন পর্যন্ত রেকর্ড করা সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। এর আগে ১৯৬৮ সালে সর্বনিম্ন মাইনাস ১২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়।

কানাডার আবহাওয়া-সংক্রান্ত টেলিভিশন চ্যানেল দ্য ওয়েদার নেটওয়ার্কের আবহাওয়াবিদ জেসি উপালও ঘটনাটিকে বিরল বলে উল্লেখ করেছেন। তাঁর মতে, মাত্রাছাড়া শীতল আবহাওয়ার কারণেই এমনটি হয়ে থাকে।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন