default-image
বিজ্ঞাপন

ভারতের পশ্চিমবঙ্গে সেপ্টেম্বরের শেষ দিকে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে আশা করছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সচিবালয় নবান্নে এক প্রশাসনিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে, অর্থাৎ, ২০ থেকে ২৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে করোনা এই রাজ্যে নিয়ন্ত্রণে আসবে। ফলে, এবার করোনামুক্ত পরিবেশে উদ্‌যাপিত হতে পারে শারদীয় দুর্গোৎসব।

বিজ্ঞাপন

করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার এখনো নিয়ন্ত্রণে আনতে পারেনি পশ্চিমবঙ্গ সরকার। তবে সংক্রমণের হারের চেয়ে সুস্থতার হার ক্রমেই বাড়ছে। রাজ্যের মানুষও আশায় দিন গুনছে, সত্যিই হয়তো পশ্চিমবঙ্গ থেকে করোনা ধীরে ধীরে বিদায় নিতে চলেছে।

গতকাল মমতা বলেন, এই রাজ্যে করোনা নিয়ন্ত্রণে এলে তিনি সেপ্টেম্বরেই জেলা সফর শুরু করবেন। মমতা বলেছেন, এখন রাজ্যে সংক্রমণ এবং মৃত্যুর হার কমছে। বাড়ছে সুস্থতার হার। মমতা এদিন এ কথাও বলেন, ভিনরাজ্য থেকে এই রাজ্যে কেউ করোনার চিকিৎসার জন্য এলে তাঁদের যেন চিকিৎসা করা হয়। একই সঙ্গে তাঁদের তালিকাও সংরক্ষণ করার কথা বলেছেন তিনি।

বিজ্ঞাপন

কলকাতায় করোনার সংক্রমণ হার কিছুটা কমে যাওয়ায় এবং সুস্থতার হার বেড়ে যাওয়ার কলকাতার কনটেনমেন্ট জোনের (বেশি আক্রান্ত মানুষের এলাকা) সংখ্যা ২৯ থেকে কমিয়ে ১৭টি করা হয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গে সুস্থতার হার বাড়ছে। গতকাল এই হার বেড়ে হয়েছে ৭৯ দশমিক ১০ শতাংশ। গতকালই রাজ্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় এই রাজ্যে নতুন করে করোনায় সংক্রমিত ২ হাজার ৯৬৪ জন। সুস্থ ৩ হাজার ২৫১ জন। সব মিলিয়ে এ পর্যন্ত সুস্থ ১ লাখ ১৪ হাজার ৫৪৩ জন। তবে সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৫৮ জনের। সব মিলিয়ে এই রাজ্যে এ পর্যন্ত মৃত্যু ২ হাজার ৯০৯ জনের। এখন পর্যন্ত এই রাজ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৪৪ হাজার ৮০১ জন।

বিজ্ঞাপন

সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩৭ হাজার ৫২৪ জনের। এ পর্যন্ত এই রাজ্যে করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৬ লাখ ৩৪ হাজার ১০২ জনের।

পশ্চিমবঙ্গে করোনার সংক্রমণ প্রথম শনাক্ত হয় ১৭ মার্চ। করোনায় এই রাজ্যে প্রথম মৃত্যু ঘটে ২৩ মার্চ।

মন্তব্য পড়ুন 0