দখলকৃত পশ্চিম তীরে গতকাল শুক্রবার ইসরায়েলি সেনাদের ছোড়া কাঁদানে গ্যাসের শেল সেনাদের দিকে ছুড়ে মারছেন এক ফিলিস্তিনি তরুণ
দখলকৃত পশ্চিম তীরে গতকাল শুক্রবার ইসরায়েলি সেনাদের ছোড়া কাঁদানে গ্যাসের শেল সেনাদের দিকে ছুড়ে মারছেন এক ফিলিস্তিনি তরুণছবি: এএফপি

জর্ডান উপত্যকায় ফিলিস্তিনিদের বসতিগুলো উচ্ছেদ ও জব্দ বন্ধ করতে ইসরায়েলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ ও নিরাপত্তা পরিষদের ইউরোপিয়ান সদস্যরা। জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের মাসিক সভা শেষে গতকাল শুক্রবার এক যৌথ বিবৃতিতে ইসরায়েলের প্রতি এই আহ্বান জানানো হয়।

যৌথ বিবৃতিতে মধ্যপ্রাচ্য, এস্তোনিয়া, ফ্রান্স, আয়ারল্যান্ড, নরওয়ে ও ব্রিটেনে চলমান সংঘাতের বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। একই সঙ্গে হামসা আল-বাকিয়া এলাকার বাসিন্দাদের কাছে মানবিক সহায়তা পৌঁছানোর সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, হামসা আল-বাকিয়া পশ্চিম তীরে ফিলিস্তিনের কাছ থেকে দখলকৃত কথিত ‘এরিয়া-সি’র আওতাভুক্ত অঞ্চল।এলাকাটির সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর হাতে। ইসরায়েলের সামরিক আইন অনুযায়ী, অনুমতি ছাড়া এই এলাকায় কোনো অবকাঠামো নির্মাণ করা যাবে না। সাধারণত অবকাঠামো নির্মাণের কোনো আবেদন পেলে তা প্রত্যাখ্যান করা হয়।এরপরও কেউ কিছু নির্মাণ করলে সেটা গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়।

ওই অঞ্চলে জাতিসংঘের মুখপাত্র নরওয়েজীয় টর ওয়েনেসল্যান্ড বলেন, জর্ডান উপত্যকায় বেদুইন সম্প্রদায়ের অন্তত ৮০টি অবকাঠামো ধ্বংস করেছে ইসরায়েলি বাহিনী। ইসরায়েলি সেনাদের এই পদক্ষেপের কারণে ৩৬ শিশুসহ অন্তত ৬৩ জন ফিলিস্তিনি বাস্তুচ্যুত হয়েছে। গত বছরের নভেম্বরেও ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী একই কাণ্ড করেছিল। তিনি আরও বলেন, ‘আমি ইসরায়েলকে দখলকৃত পশ্চিম তীরে ফিলিস্তিনিদের সম্পত্তি ধ্বংস ও জব্দ করা বন্ধ করার আহ্বান জানাচ্ছি। সেখানে ফিলিস্তিনিদের তাদের সম্প্রদায় বিকাশের সুযোগ দিতে বলছি।’

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন