বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দেড় একর জায়গা নিয়ে মাত্র ৫৪০ বর্গফুটের বাড়িটি নির্মাণ করা হয় ২০০৯ সালে। বাড়িতে আছে একটি শোবার ঘর ও ছোট্ট একটি রান্নাঘর। সমুদ্রের অসাধারণ সব দৃশ্য দেখা যায় সেখান থেকে। বাড়িটি যিনি কিনবেন, তাঁকে কোনো দিন যানবাহনের শব্দ শুনতে হবে না। অতিরিক্ত বন্ধুসুলভ প্রতিবেশীরাও কখনোই বিরক্ত করতে আসবেন না। ঘরে যেন কোনো জায়গার কমতি না হয়, তাই রান্না ও শোবার ঘর ছাড়া আর কিছু নেই ভেতরে। একটি বাথরুম আছে ঘরের বাইরে।

বাড়ির মালিক বাড়িটি বিক্রির দায়িত্ব দিয়েছেন একটি সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রতিষ্ঠানকে। প্রতিষ্ঠানটি বাড়িটি বিক্রির জন্য তালিকাভুক্ত করে সেখানে লিখেছে, ‘বাড়ির আশপাশে এমন সব দৃশ্য আছে, যা সারাক্ষণ আপনাকে বিনোদিত করবে। এখানে কোনো গাছ নেই, কিন্তু প্রকৃতির এমন সব দৃশ্য দেখা যায়, যা আর কোথাও দেখা যাবে না। এই বাড়ির পাশে আপনার কোনো প্রতিবেশীও নেই। তবে দ্বীপ ও নির্জন সময় কাটানো একসঙ্গে দুটোই এখানে মিলবে।’

বাড়িটির অবকাঠামোও বেশ ভালো। বাড়ি থেকে মাত্র কয়েক মিটার দূরে সৈকত। আশপাশে জনমানবহীন বাড়িটির চারপাশে শুধু মনোরম প্রাকৃতিক দৃশ্য। প্রকৃতির এমন রূপের দেখা কোথাও মিলবে না। দ্বীপটির মূল ভূখণ্ড থেকে বাড়ির দূরত্ব মাত্র এক মাইলের। জোনসপোর্ট শহর থেকে ছোট নৌকায় কম সময়ে সেখানে যাওয়া যায়।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন