default-image

মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস বিয়ে নিয়ে খুবই ‘সিরিয়াস’ ছিলেন। তিনি এতটাই ‘সিরিয়াস’ ছিলেন যে একটি সাদা বোর্ডে বিয়ের পক্ষে-বিপক্ষের যুক্তিগুলোর একটি তালিকা পর্যন্ত করেছিলেন।

২০১৯ সালে নেটফ্লিক্সের তিন পর্বের ‘ইনসাইড বিলস ব্রেইন: ডিকোডিং বিল গেটস’ নামের তথ্যচিত্রে বিল গেটস ও মেলিন্ডা গেটসের আলোচনায় এই তথ্য উঠে আসে। সোমবার ‘নিউইয়র্ক পোস্ট’ এক প্রতিবেদনে এ কথা জানায়।

বিজ্ঞাপন

বিল গেটস ও মেলিন্ডা দীর্ঘ ২৭ বছরের দাম্পত্য জীবনের ইতি টানার ঘোষণা দিয়েছেন। তাঁরা সোমবার টুইটারে এ-সংক্রান্ত ঘোষণা দেন।

মেলিন্ডা ১৯৮৭ সালে প্রোডাক্ট ম্যানেজার হিসেবে মাইক্রোসফটে যোগ দেন। একই বছর নিউইয়র্কে প্রতিষ্ঠানের এক নৈশভোজে মেলিন্ডা ও বিল গেটসের সাক্ষাৎ হয়। তারপর তাঁরা দীর্ঘদিন প্রেম করেন। বিল গেটস ও মেলিন্ডা জুটি ১৯৯৪ সালে বিয়ে করেন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ‘দ্য ওয়াল স্ট্রিট’ জার্নালের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে বিল গেটস বলেছিলেন, বিয়ে করা তাঁর জীবনের সেরা সিদ্ধান্ত। আর মাইক্রোসফট তাঁর জীবনে বড় অবদান রাখলেও সেটির অবস্থান ২ নম্বরে।

default-image

বিয়ের পক্ষে-বিপক্ষের যুক্তি নিয়ে বিল গেটসের তালিকা করার কথা মনে করে নেটফ্লিক্সের তথ্যচিত্রে হেসে উঠেছিলেন মেলিন্ডা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছিলেন, বিয়ে করবে কি না, সে ব্যাপারে বিল গেটসকে একটা সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছিল।

তথ্যচিত্রে বিল গেটস বলেছিলেন, ‘বিয়ের বিষয়টিকে আমি খুবই গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছিলাম।’

তথ্যচিত্রে মেলিন্ডার উদ্দেশে বিল গেটস বলেছিলেন, ‘তুমি জানো, আমরা পরস্পরের খুব খেয়াল রাখতাম। এখানে দুটি সম্ভাবনা ছিল। হয় আমাদের প্রেমে বিচ্ছেদ হবে, নয়তো আমরা বিয়ে করব।’

বিজ্ঞাপন

তথ্যচিত্রে মেলিন্ডা বলেছিলেন, বিল গেটস বিয়ে করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু বিল গেটস জানতেন না, তিনি আসলে বিয়ের প্রতি অঙ্গীকারবদ্ধ থাকতে পারবেন কি না। একই সঙ্গে মাইক্রোসফট চালাতে পারবেন কি না।

তথ্যচিত্রে বিল গেটস ও মেলিন্ডা উভয়ই বলেছিলেন, তাঁরা সত্যিকারের সমান অংশীদার।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন