default-image

ভারতে করোনা সংক্রমণ দিন দিন বাড়ছে। গত চার মাসের মধ্যে দেশটিতে শনিবার সবচেয়ে বেশি কোভিড–১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছে। মহারাষ্ট্র রাজ্যের মুম্বাই এখন করোনা সংক্রমণের সবচেয়ে মারাত্মক হটস্পট। এর পাশাপাশি উদ্বেগ বাড়ছে উত্তরাখন্ডেও। এ রাজ্যে শুরু হতে যাচ্ছে হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম বৃহত্তম উৎসব কুম্ভমেলা। মাসব্যাপী এ আয়োজনে জমায়েত হতে পারে ১৫ কোটির বেশি ভক্ত–দর্শনার্থী। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির এই সময়ে এত মানুষের সমাগম মুম্বাইয়ের পরে উত্তরাখন্ডকে নতুন হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত করতে পারে বলে আশঙ্কা বিশ্লেষকদের।

হিমালয়ের কোল ঘেঁষে উত্তরাখন্ডের হরিদ্বারে বসে কুম্ভমেলার আসর। প্রতি ১২ বছরে একবার গঙ্গা নদীর পাড়ে মহাকুম্ভমেলা আয়োজন করা হয়। এবারের মেলা শুরু হবে ১ এপ্রিল। চলবে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত। পবিত্র বিবেচনা করে প্রতিবারই দেশ–বিদেশ থেকে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ গঙ্গাস্নান করতে কুম্ভমেলায় সমবেত হন। এবার ১৫ কোটির বেশি ভক্ত–দর্শনার্থী কুম্ভমেলায় উপস্থিত থাকবেন বলে আশা আয়োজকদের।

বিজ্ঞাপন

তবে এবারের কুম্ভমেলায় শঙ্কা তৈরি করেছে করোনা সংক্রমণ। মেলা শুরুর আগে এরই মধ্যে হরিদ্বারে দেশ–বিদেশ থেকে ভক্ত–দর্শনার্থীরা আগাম উপস্থিত হতে শুরু করেছেন। ভিড় বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে সংক্রমণও। ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাতে রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হরিদ্বারে এখনই প্রতিদিন ৪০ জনের বেশি মানুষের শরীরে করোনা শনাক্ত হচ্ছে। এপ্রিলে মেলার মূল আয়োজন শুরু হলে ভক্ত–দর্শনার্থীর উপস্থিতি আরও বাড়বে। মন্ত্রণালয় সতর্ক করে বলছে, তখন করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া ঠেকানো কঠিন হয়ে যেতে পারে। কুম্ভমেলা ঘিরে করোনার হটস্পট হয়ে উঠতে পারে হরিদ্বার।

রোববার উত্তরাখন্ড রাজ্য সরকারকে একটি চিঠি পাঠিয়েছে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এতে বলা হয়েছে, হরিদ্বারে এখন প্রতিদিন ৫৫ হাজার মানুষের করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। শনাক্তের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। তবে মেলার মূল আয়োজন শুরু হলে পরীক্ষা আরও বাড়াতে হবে। বাড়তি সতর্কতা মেনে চলতে হবে।

মহারাষ্ট্রসহ ভারতের ১২টির বেশি রাজ্যে কয়েক সপ্তাহ ধরে করোনা সংক্রমণ বাড়তির দিকে রয়েছে। কুম্ভমেলায় অংশ নিতে এসব রাজ্য থেকে ভক্ত–দর্শনার্থীরা হরিদ্বারে যাবেন। তাঁরা সেখানে ভাইরাস বয়ে নিতে পারেন বলে আশঙ্কা করছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এ জন্য রাজ্য সরকারকে বাড়তি সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।

রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে এরই মধ্যে কুম্ভমেলায় হাজির হওয়া ভক্ত–দর্শনার্থীদের মাস্ক পরতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বিনা মূল্যে বিতরণ করা হচ্ছে মাস্ক।

জনসমাগমস্থল স্যানিটাইজ করার ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। তবে বিপুল জনসমাগমের সময় এসব স্বাস্থ্যবিধি কতটা মেনে চলা সম্ভব হবে, সেটা নিয়ে সংশয় রয়ে যাচ্ছে।

এদিকে গতকাল ভারতে এক দিনে ৪৩ হাজার ৮৪৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

গত চার মাসের মধ্যে এটাই সর্বোচ্চ শনাক্তের সংখ্যা। কোভিড–১৯ আক্রান্ত হয়ে ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মারা গেছেন ১৯৭ জন। করোনায় সংক্রমিত হয়ে ভারতে সব মিলিয়ে ১ লাখ ৫৯ হাজার ৭৫৫ মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

মহারাষ্ট্র রাজ্যের মুম্বাই ভারতে করোনা সংক্রমণের হটস্পট। সেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজার ৭৭৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

মারা গেছেন ১০ জন। এনডিটিভি বলছে, মহামারি শুরুর পর এটাই মুম্বাইয়ে এক দিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের সংখ্যা। সংক্রমণের লাগাম টানতে মুম্বাইয়ে জনসমাগমস্থলে করোনাভাইরাসের পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। কেউ পরীক্ষা করাতে না চাইলে সেটি অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে।

গত ২৪ ঘণ্টায় শুধু মহারাষ্ট্রে ৩০ হাজার ৫৩৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মারা গেছেন ৯৯ জন। মহারাষ্ট্র, পাঞ্জাব, কর্ণাটক, গুজরাট এবং মধ্যপ্রদেশ—এ পাঁচ রাজ্যে ভারতে মোট শনাক্তের প্রায় ৭৮ শতাংশ কোভিড–১৯ রোগীর অবস্থান।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন