default-image

আগামী বছরের শেষ নাগাদ বিশ্বের স্বাভাবিক অবস্থায় ফেরা উচিত। এ জন্য ধন্যবাদ জানানো যেতে পারে কোভিড-১৯ টিকাকে। মাইক্রোসফটের সহপ্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস পোলিশ সংবাদপত্র গ্যাজেটা ওয়বোরকজা ও টিভিএন ২৪ কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ আশার কথা শুনিয়েছেন।

করোনা মহামারি প্রসঙ্গে বিল গেটস বলেন, এটি একটি অবিশ্বাস্য দুঃখজনক ঘটনা। এ ক্ষেত্রে তাঁর চোখে সবচেয়ে ভালো খবর হলো টিকা প্রাপ্তির সুবিধা। বিল গেটস বলেন, ‘২০২২ সালের শেষে আমাদের অবশ্যই পুরোপুরি স্বাভাবিকে ফিরে আসা উচিত।’

মাইক্রোসফটের চেয়ারম্যান পদ থেকে ২০১৪ সালে সরে দাঁড়ান বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ধনী বিল গেটস। এরপর থেকে বিল ও মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে দাতব্য কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। গেটস তাঁর দাতব্য সংস্থার মাধ্যমে কোভিড-১৯ মহামারির বৈশ্বিক প্রতিক্রিয়া হিসেবে ১৭৫ কোটি মার্কিন ডলার সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এ সাহায্য পাবে কিছু টিকা উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান, করোনা শনাক্তকরণ প্রযুক্তি উদ্ভাবনকারী ও সম্ভাব্য চিকিৎসা উদ্ভাবনকারী।

বিজ্ঞাপন

দ্য ইনডিপেনডেন্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বিল গেটসের সাম্প্রতিক এ মন্তব্য সামনে আসার আগে গত সপ্তাহে তিনি সামাজিক যোগাযোগের অ্যাপ ক্লাবহাউসকে এক সাক্ষাৎকার দেন। সেখানে তিনি বলেন, ‘তিনি মনে করেন এই বছরের বসন্ত বা গ্রীষ্মে লোকজন তাদের আচরণ উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন করতে পারে।’

বিল গেটস মহামারি নিয়ে অনেক আগেই পূর্বাভাস দিয়েছিলেন। তাঁর পূর্বাভাস ঘিরে নানা ষড়যন্ত্রতত্ত্ব ছড়ায়। তিনি জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলার পক্ষেও তাঁর জোর কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন। বিবিসি নিউজকে তিনি সম্প্রতি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন সমস্যার বিষয়টি সফলভাবে সমাধান করা গেলে তা মানবতার জন্য সবচেয়ে দারুণ কাজ হবে।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন