বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

বিবিসির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা গেছে, মন্ত্রী প্রথমে তাঁর পায়ের দিকে নিচু হয়ে তাকিয়ে মাকড়সা খোঁজার চেষ্টা করেন। তার পরপরই আবার শান্তভাবে বক্তব্য শুরু করেন। তিনি বলেন, ‘ঠিক আছে, কেউ কি একটু আমাকে মাকড়সাটা সরাতে সহযোগিতা করতে পারবেন?’ তাঁর সহযোগীদের কয়েকজন মাকড়সা খুঁজতে এগিয়ে আসেন। আর মন্ত্রী স্বাভাবিক ভঙ্গিমায় বক্তব্য দিয়ে যেতে থাকেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের মজা করে বলেন, ‘যাক, আমি কথা চালিয়ে যাই। এতে বোঝা যাবে, আমি পরিস্থিতি কতটুকু নিয়ন্ত্রণ করতে পারি। আমি হান্টসম্যান মাকড়সা (বড় মাকড়সা) পছন্দ করি না, কিন্তু স্বাভাবিক থাকার চেষ্টা করছি। এমন ভাব করার চেষ্টা করছি, যেন আমার গায়ে কোনো মাকড়সা নেই। অন্য কেউ এটা সামলে নেবে। তবে মুখের কাছাকাছি চলে এলে আমাকে জানাবেন কিন্তু।’

এরপর ইভে ডার কার্যালয়ের প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তাও তাঁকে সহযোগিতা করতে এগিয়ে যান। তখন একজন ইভে ডাকে দেখিয়ে দেন, তাঁর পায়ের কাছে আছে মাকড়সাটি। তিনিও তখন পায়ের দিকে তাকিয়ে মাকড়সা দেখতে পান। এত শোরগোলে শেষ পর্যন্ত মাকড়সাটি সরে পড়ে।

তখন ইভে ডা হেসে বলে ওঠেন, ‘ও ভয় পেয়ে গেছে।’

অস্ট্রেলিয়ান এ মন্ত্রী মজা করে আরও বলেন, ‘যাক, একই সঙ্গে কোভিড আর হান্টসম্যান দুটিকেই পেয়ে গেলাম আমরা।’

এরপর আবারও সংবাদ সম্মেলনের মূল আলোচনায় ফিরে যান তাঁরা।

হান্টসম্যান মাকড়সা হলো স্প্যারাসিডে পরিবারভুক্ত একটি বড় আকারের মাকড়সা। এর পা ১৫ সেন্টিমিটার (৬ ইঞ্চি) পর্যন্ত বড় হয়ে থাকে। এরা বিষধর হলেও সহজে কামড় দেয় না। আর এ কারণে এসব মাকড়সাকে বিপজ্জনক বিবেচনা করা হয় না।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন