বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পানির নিচে প্রত্নতত্ত্ব অনুসন্ধানে কাজ করা আইএনএএইচের একদল গবেষক মেক্সিকোর দক্ষিণে যুকাতান ও কুইনতানা রাজ্যের মধ্যবর্তী অঞ্চলের একটি ভূগর্ভস্থ নদীতে প্রাক্‌-হিস্পানিক যুগের এ নৌযানের সন্ধান পান। ভূগর্ভস্থ ওই নদীকে সিনোট বলে, যা যুকাতান উপদ্বীপে সচরাচর দেখা যায়। মায়া অধিবাসীদের কাছে এটি পবিত্র জায়গা।

‘মায়া ট্রেন’ নামে একটি প্রকল্পের কাজের সময় ওই ক্যানোর সন্ধান পাওয়া গেছে। এটি মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদরের একটি বিতর্কিত পর্যটন প্রকল্প। এর মাধ্যমে ক্যারিবীয় রিসোর্টগুলোর সঙ্গে প্রাচীন প্রত্নতাত্ত্বিক স্থানগুলোর সংযোগের লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

আইএনএএইচ গত শুক্রবার এক বিবৃতিতে বলেছে, ছোট নৌকাটি সিনোট থেকে পানি তোলার জন্য বা ধর্মীয় আচারের সময় নৈবেদ্য জমা করার জন্য ব্যবহার করা হতে পারে।

গবেষকেরা বলেছেন, মায়া অঞ্চল থেকে এত ভালোভাবে সংরক্ষিত অবস্থায় উদ্ধার করা এই ধরনের প্রথম ক্যানো এটি। এর আগে গুয়াতেমালা ও বেলিজ থেকে এ ধরনের ডিঙিনৌকার অংশবিশেষ উদ্ধার করা হয়েছিল। ধারণা করা হচ্ছে, এ ক্যানো ৮৩০ থেকে ৯৫০ অব্দের হতে পারে। তবে এ নিয়ে আগামী নভেম্বরে আরও বিশ্লেষণ করার কথা বলেছে আইএনএএইচ। এ কাজে সহযোগিতা করবে প্যারিস বিশ্ববিদ্যালয়।

মেক্সিকোতে হিস্পানিক–পূর্ব বেশ কিছু সমাজব্যবস্থা গড়ে উঠেছিল। এর মধ্যে রয়েছে অ্যাজটেক ও মায়ার মতো সভ্যতাও। এ অঞ্চলে প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন প্রায়ই দেখতে পাওয়া যায়।

এ বছরের জানুয়ারিতে মায়া ট্রেন নির্মাণের সময় কর্তৃপক্ষ প্রায় আট হাজার প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শন খুঁজে পাওয়ার কথা বলেছে।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন