default-image

যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে যুদ্ধবিমান ক্রয়ে আত্মবিশ্বাসী ওয়াশিংটনে নিযুক্ত সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) রাষ্ট্রদূত। তিনি মনে করেন, নতুন মার্কিন প্রশাসন অস্ত্র বিক্রির চুক্তি পুনর্মূল্যায়নের পর আমিরাত এফ-৩৫ মডেলের যুদ্ধবিমান পাবে।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল–জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, গত মাসে নিজের শেষ কার্যদিবসের দিন ইউএইর কাছে যুদ্ধবিমানসহ বেশ কিছু অস্ত্র বিক্রির চুক্তি সই করেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ২ হাজার ৩০০ কোটি ডলারের চুক্তিতে এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান, আর্মড ড্রোন ছাড়াও বেশ কিছু প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম বিক্রির কথা রয়েছে।

ইউএইর রাষ্ট্রদূত ইউসেফ আল-ওতাইবা স্থানীয় সময় সোমবার ভার্চ্যুয়াল এক সভায় বলেন, ‘আমাদের দিক থেকে নথিপত্রের সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হয়েছে। পুনর্মূল্যায়ন শেষে তারা এটা বুঝতে পারবেন এবং এই প্রক্রিয়ার অগ্রগতি হবে।’

বিজ্ঞাপন

গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের কার্যালয় থেকে বলা হয়, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন মার্কিন মিত্রদের কাছে অস্ত্র বিক্রির প্রক্রিয়াটি স্থগিত করেছে। অস্ত্র বিক্রির জন্য করা চুক্তি পুনর্মূল্যায়ন করবে বাইডেন প্রশাসন।

তবে এ বিষয়ে আল-ওতাইবা বলেন, ‘সবকিছুই প্রক্রিয়াধীন। একই সময়ে একটি পুনর্মূল্যায়ন চলমান। আমি আত্মবিশ্বাসী এটি ঠিকমতো শেষ হবে।’

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন