যৌন অপরাধের বিষয়ে প্রিন্স অ্যান্ড্রুকে সাক্ষ্য দিতে হবে: আইনজীবী

বিজ্ঞাপন
default-image

যৌন পাচারের বিষয়ে ব্রিটিশ রাজপরিবারের সদস্য প্রিন্স অ্যান্ড্রুর কাছে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকতে পারে। তাই তাঁকে এ ব্যাপারে অবশ্যই আদালতে সাক্ষ্য দিতে হবে। অভিযোগকারী নারীদের এক আইনজীবী এ কথা বলেছেন। আজ মঙ্গলবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

মার্কিন বিনিয়োগকারী জেফরি এপস্টেইনের বিরুদ্ধে যৌন অপরাধের অভিযোগ আনা নারীদের ওই আইনজীবী দাবি করেছেন, যুক্তরাজ্যের ডিউক অব ইয়র্ক প্রিন্স অ্যান্ড্রু ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী।

যৌন পাচারের অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রে এপস্টিইনের বিচার শুরুর আগে গত আগস্টে তিনি কারাগারে আত্মহত্যা করেন। ব্রিটিশ রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের তৃতীয় সন্তান প্রিন্স অ্যান্ড্রুর সঙ্গে এপস্টেইনের বন্ধুত্বের সম্পর্ক ছিল।

ভুক্তভোগী নারীদের আইনজীবীর ভাষ্য, এপস্টেইনের বাড়িতে শরীরী পরিচর্যার বিষয়টি দেখেছেন প্রিন্স অ্যান্ড্রু।

পাঁচ নারীর প্রত্যেকের মামলায় সাক্ষী হিসেবে আদালতে সাক্ষ্য দিতে প্রিন্স অ্যান্ড্রুকে বাধ্য করতে চান ভুক্তভোগীদের আইনজীবী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সাক্ষ্য দিতে প্রিন্স অ্যান্ড্রুকে সমন দেওয়ার বিষয়ে পরিকল্পনা করছেন তিনি।

প্রিন্স অ্যান্ড্রু দাবি করেছেন, এপস্টেইনের বাড়িতে তিনি যখন গিয়েছিলেন, তখন কোনো অপরাধমূলক বা সন্দেহজনক কিছু দেখেননি।

এপস্টিইনের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে প্রিন্স অ্যান্ড্রু তীব্র সমালোচনার মুখে আছেন। তাঁর ক্ষমা চাওয়ারও দাবি উঠেছে।

সমালোচনার মুখে সম্প্রতি রাজকীয় দায়িত্ব থেকে সরে দাঁড়ান প্রিন্স অ্যান্ড্রু।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন