default-image

করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) প্রতিরোধে রাশিয়ার তৈরি টিকা স্পুতনিক-ভি ৯১ দশমিক ৬ শতাংশ কার্যকর বলে দাবি করা হয়েছে। করোনার উপসর্গ থাকা ৬০ বছরের বেশি বয়সীদের ক্ষেত্রে এই কার্যকারিতা ৯১ দশমিক ৮ শতাংশ। এই টিকার তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার অন্তর্বর্তীকালীন তথ্য বিশ্লেষণের ভিত্তিতে এমন দাবি করা হয়।

এর আগে টিকাটির পরীক্ষামূলক প্রয়োগের দ্বিতীয় অন্তর্বর্তীকালীন বিশ্লেষণে দাবি করা হয়েছিল এটা ৯৫ শতাংশ কার্যকর।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান আজ এক প্রতিবেদনে বলেছে, স্পুতনিক-ভি টিকার অন্তর্বর্তী পরীক্ষায় অংশ নেন ২০ হাজারের বেশি মানুষ। তাদের এক-তৃতীয়াংশকে এই টিকা দেওয়া হয়। বাকিদের দেওয়া হয় প্লাসেবো (প্রতিক্রিয়াহীন তরল পদার্থ)। আসল টিকা গ্রহণকারীদের কারও বড় ধরনের কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা যায়নি। যদিও টিকা নেওয়ার পর কেউ কেউ হালকা জ্বরের মতো উপসর্গ, ইনজেকশনের স্থানে ব্যথা বা দুর্বলতা বোধ করেছিলেন।

বিজ্ঞাপন

চিকিৎসাবিষয়ক ব্রিটিশ সাময়িকী দ্য ল্যানসেটে গবেষকেরা লিখেছেন, এই পরীক্ষার মধ্যেই আলাদা করে ৬০ বছরের বেশি বয়সী ২ হাজার ১৪৪ জনকে আলাদা করে টিকা প্রয়োগ করা হয়। এদের করোনার উপসর্গ ছিল। এ ক্ষেত্রে স্পুতনিক-ভি টিকার কার্যকারিতা ৯১ দশমিক ৮ শতাংশ পাওয়া যায়।

স্পুতনিক-ভি টিকাটির প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান গামালেয়া রিসার্চ সেন্টার, রাশিয়া ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড (আরডিআইএফ) ও রুশ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এই টিকা ২১ দিনের ব্যবধানে দুটি ডোজ নিতে হয়।

default-image

যুক্তরাজ্যের লিডস ইউনিভার্সিটির স্কুল অব মেডিসিনের সহযোগী অধ্যাপক স্টিফেন গ্রিফিন বলেন, তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষার তথ্য বিশ্লেষণের ফল কার্যকারিতার বিবেচনায় বেশ উৎসাহব্যাঞ্জক। বড় ধরনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই ও প্রবীণ রোগীদের ক্ষেত্রে সমানভাবে কার্যকর।’

এখন এই টিকার শেষ পর্যায়ের পরীক্ষা শুরু হবে। এ পর্যায়ের পরীক্ষা ৪০ হাজার স্বেচ্ছাসেবীর অংশগ্রহণ থাকবে। যাদিও এর আগেই রুশ কর্তৃপক্ষ এই টিকার গণপ্রয়োগের অনুমতি দিয়েছে। রাশিয়াসহ কয়েকটি দেশে করোনা ঠেকাতে স্পুতনিক-ভি মানবদেহে প্রয়োগ শুরু হয়েছে।

এ ছাড়া ফাইজার-বায়োএনটেক, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা, মডার্না ও সিনোফার্মের তৈরি করোনা টিকা বিভিন্ন দেশে প্রয়োগ শুরু হয়েছে। এর মধ্যে ফাইজারের টিকা ৯৫ শতাংশ পর্যন্ত, মডার্নার টিকা ৯৫ শতাংশ এবং অক্সফোর্ডের টিকা ৭০ শতাংশ পর্যন্ত সুরক্ষা দিতে পারে বলে দাবি করে প্রতিষ্ঠানগুলো।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন