default-image

অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যায় ও অ্যাস্ট্রাজেনেকার উদ্ভাবিত করোনার টিকা কোভিশিল্ডের মেয়াদ ৬ মাস থেকে বাড়িয়ে ৯ মাস করার প্রস্তাব দিয়েছিল উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট। তবে এ প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাতে ভারতের গণমাধ্যমে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, পুনের সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত টিকা কোভিশিল্ড উৎপাদনের তারিখ থেকে সর্বোচ্চ ৬ মাস পর্যন্ত ব্যবহার করা যায়। এ মেয়াদ বাড়িয়ে ৯ মাস করার ইচ্ছা ছিল সেরামের। এ জন্য ড্রাগস কন্ট্রোলার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (ডিসিজিআই) বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় প্রস্তাব পাঠায়।

আলোচনার পর এ প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছে সংস্থাটি। এর চেয়ে বিস্তারিত আর কোনো তথ্য জানা যায়নি।

বিজ্ঞাপন

গত ফেব্রুয়ারিতে সেরামকে একটি চিঠি পাঠায় ডিসিজিআই। চিঠিতে ডিসিজিআইয়ের প্রধান ভি জি সোমানি জানান, টিকার মেয়াদ বাড়িয়ে ৬ মাস থেকে ৯ মাস করার প্রস্তাবে প্রতিষ্ঠানটির আপত্তি নেই। এতে টিকার অপচয় কমার সুযোগ বাড়বে। তবে ডব্লিউএইচওর আপত্তিতে সেরামে উৎপাদিত টিকার মেয়াদ বাড়ানোর পথ আপাতত রুদ্ধ হয়ে গেল।

বিশ্বজুড়ে করোনা সংক্রমণ আবারও বাড়তে শুরু করেছে। দেশে দেশে বাড়ছে টিকার চাহিদাও। বাড়তি চাহিদার চাপ সামলাতে টিকা উৎপাদন বাড়াতে চাইছে সেরাম।

প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার আদর পুনাওয়ালা সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, উৎপাদন বাড়িয়ে বিদেশে টিকা রপ্তানি জারি রাখতে সেরাম ইনস্টিটিউটের ৩ হাজার কোটি রুপি প্রয়োজন।

বিশ্ব থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন