default-image

আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি। বিশ্বজুড়েই তাঁর অগণিত ভক্ত। ভক্তদের চাওয়া থাকে, প্রিয় তারকাকে কাছে থেকে দেখা বা একটু ছুঁয়ে দেখা। কিন্তু সবার তো সেই চাওয়া পূরণ হয় না। বিভিন্ন দেশের মতো মেসির এমন ভক্ত আছে মিসরেও। আফ্রিকার দেশটির জাগাজিগ শহরের একটি এতিমখানার বাসিন্দা মেসির এই শিশু ভক্তরা।

সত্যিকার লিওনেল মেসির দেখা পায়নি তারা। তাতে কি! মেসির মতোই যে দেখতে আছেন একজন! তিনি ইসলাম বাট্টাহ। বার্সেলোনার ফুটবল তারকা মেসিকে কাছে না পেলেও ইসলাম বাট্টাহকে পেয়েই খুশির শেষ নেই তাদের। মেসির সঙ্গে বাট্টার চেহারার এতটা মিল যে জাগাজিগ শহরের একটি এতিমখানার শিশুরা তাঁকে কাছে পেয়ে ঘিরে ধরে।

বিজ্ঞাপন

এতিমখানার এই শিশুদের মতোই যেকোনো অনুষ্ঠানে ২৭ বছর বয়সী মিসরীয় বাট্টাহর উপস্থিতি বড়দেরও আনন্দ দেয়। তাঁদের আনন্দ তিনিও উপভোগ করেন। তাইতো পেশায় চিত্রশিল্পী হলেও স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনার জার্সি গায়ে মেসির মতো ক্যামেরার সামনে পোজ দেন। অংশ নেন ফুটবল খেলাতেও।

বাট্টাহ বলেন, ‘আমি যখন দাড়ি বড় রাখা শুরু করি, তখন বন্ধুরা আমাকে বলত, আমাকে মেসির মতো লাগে। পরে দাড়ি আরও বড় করলে মেসির চেহারার সঙ্গে আমার চেহারার মিল পরিষ্কারভাবে ফুটে ওঠে।’

‘মেসির সঙ্গে আমার চেহারার মিল দেখে ছোট ছোট বাচ্চারা যে আনন্দ পায়, তা ভাষায় বর্ণনা করার মতো না। যখন আপনি কাউকে আনন্দ দেবেন, তখন স্রষ্টাও আপনাকে পুরস্কৃত করবেন। আমি এ আনন্দ তাদের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নিই,’ বলেন বাট্টাহ।

বাট্টাহর সঙ্গে ফুটবল খেলেছে শিশু আম্মর আশরেই। সে বলছিল, ‘আমি খুব খুশি। তাঁর সঙ্গে যখন খেলেছি, মনে হয়েছে মেসিই আমাদের সঙ্গে খেলতে এসেছেন।’ সে আরও বলে, ‘এখন আমি মোহাম্মদ সালাহকে দেখতে চাই।’ সালাহ মিসরের জাতীয় ফুটবল দলের তারকা খেলোয়াড়। তিনি ইংলিশ দল লিভারপুলে খেলেন।

আফ্রিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন