default-image

লিবিয়ার পশ্চিম উপকূল থেকে রোববার প্রায় ১০০ অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়েছে। লিবিয়ার কোস্টগার্ড সাগর থেকে তাঁদের উদ্ধার করে। বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

যাঁরা উদ্ধার হয়েছেন, তাঁদের অধিকাংশই আফ্রিকান অভিবাসী। উদ্ধার হওয়া অধিবাসীদের অধিকাংশ ক্যামেরুন, সুদান ও মালির নাগরিক। তাঁরা সমুদ্রপথে ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। তবে তাঁরা ব্যর্থ হন।

উদ্ধার হওয়া অভিবাসীদের মধ্যে ছয়জন নারী ও দুটি শিশু রয়েছে। গুরুতর অসুস্থ দুজনকে লিবিয়ার রাজধানীর একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আইওএম জানিয়েছে, উদ্ধার হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে অনেকের শরীর রোদে পুড়ে গেছে। অনেকের শরীরের তাপমাত্রা অতিরিক্ত কমে গেছে।

লিবিয়ার কোস্টগার্ডের তথ্য অনুযায়ী, ইউরোপে যাওয়ার চেষ্টায় থাকা একই অভিবাসী দলের প্রায় ২০ জন এখনো নিখোঁজ রয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

২০১১ সালে লিবিয়ার নেতা মুয়াম্মার গাদ্দাফির পতন হয়। তাঁর পতনের পর লিবিয়ায় অরাজক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। এই সুযোগটি নেন মানব পাচারকারীরা। তাঁরা ইউরোপে মানব পাচারের ক্ষেত্রে লিবিয়াকে ব্যবহার করছেন।

আইওএম বলছে, ২০২০ সালে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিতে গিয়ে বারো শর বেশি অভিবাসী ও আশ্রয়প্রার্থী মারা গেছেন।

আফ্রিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন