বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

প্রেসিডেন্ট প্রাসাদের দিকে যাওয়া একটি গাড়িবহর লক্ষ্য করে এ হামলা চালানো হয়। ব্যস্ত চেক পয়েন্টের কারণে ওই গাড়িবহর যখন থেমে ছিল, তখন এই হামলার ঘটনা ঘটে।

একজন প্রত্যক্ষদর্শী বার্তা সংস্থা এএফপিকে বলেন, চেক পয়েন্টের কাছে এক গাড়িচালককে নিরাপত্তা পরীক্ষা করার জন্য পুলিশ থামায়। তখনই বোমা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

মোহাম্মদ হাসান নামের ওই প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘চেক পয়েন্ট দিয়ে পার হওয়ার সময় পুলিশ সাধারণ গাড়ি থামিয়ে পরীক্ষা করে। নিরাপত্তারক্ষী গাড়িটি থামান এবং সেটি চলেও যায়। এ সময় আশপাশে অনেক গাড়ি ও মানুষ ছিল। আমি হতাহত অনেক মানুষকে নিয়ে যেতে দেখেছি।’

প্রত্যক্ষদর্শীরা বিবিসিকে বলেন, বিস্ফোরণে সাতটি গাড়ি ও তিনটি রিকশা ধ্বংস হয়েছে।

এই বিস্ফোরণের কয়েক ঘণ্টা আগে মোগাদিসুর সেনাবাহিনীর সদর দপ্তরের সামনে আরেকটি আত্মঘাতী বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। ওই ঘটনায় কেউ হতাহত হননি।
দেশটির অনেকে দেশের নিরাপত্তা পরিস্থিতি ক্রমেই খারাপ হওয়ার জন্য সোমালি রাজনীতিবিদদের সমালোচনা করেছেন। তাঁরা বলছেন, বিলম্বিত নির্বাচনপ্রক্রিয়া এবং প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে বিরোধ বাড়তে থাকায় এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

আফ্রিকা থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন