বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

আফগানিস্তান চরম মানবিক ও অর্থনৈতিক সংকটে পড়েছে। আগস্টে তালেবান ক্ষমতায় আসার পর অর্থসহায়তা বন্ধ হওয়ায় সংকট আরও তীব্র আকার নেয়। অর্ধেকের বেশি আফগান তীব্র ক্ষুধার হুমকিতে রয়েছে জানিয়ে সতর্ক করেছে বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (ডব্লিউএফপি)। দেশটির ৩০ লাখ শিশু এখন অপুষ্টিতে ভুগছে। মারাত্মক খরায় আফগানিস্তানের এই পরিস্থিতি। তালেবান ক্ষমতায় আসায় পশ্চিমা দেশগুলোর অর্থসহায়তা বন্ধের সিদ্ধান্তে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হয়েছে।

পশ্চিমের ক্ষমতাধর রাষ্ট্রগুলো তালেবান সরকার স্বীকৃতি দিতে চাচ্ছে না। যুক্তরাষ্ট্র ও একাধিক দেশ আফগানিস্তানের এক হাজার কোটি বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ আটকে রেখেছে। এদিকে আবার আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) ও বিশ্বব্যাংক আফগানিস্তানকে তাদের তহবিল থেকে অর্থ উত্তোলন করতে দিচ্ছে না।

ডব্লিউএফপি বলছে, আফগানিস্তানে ২ কোটি ৩০ লাখ মানুষের জরুরি খাদ্যসহায়তা প্রয়োজন। একে পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়াবহ মানবিক সংকট বলছে সংস্থাটি।

বিশ্বব্যাংক নিয়ন্ত্রিত আফগানিস্তান পুনর্গঠন ট্রাস্ট ফান্ড থেকে ছাড় হতে যাওয়া এই অর্থ জাতিসংঘের দুই সংস্থা ডব্লিউএফপি এবং ইউনিসেফে স্থানান্তর করা হবে।
এর মধ্যে ১ কোটি মার্কিন ডলার ইউনিসেফ এবং ১৮ কোটি মার্কিন ডলার ডব্লিউএফপি পাবে বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন