বিজ্ঞাপন

অন্য আরেকটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশে কুন্দুজে। প্রদেশের পুলিশপ্রধানের মুখপাত্র ইনহামুদ্দিন রাহমানি বলেন, একটি গাড়ির নিচে যুক্ত করা ছিল হাতে তৈরি বোমা। সেটি বিস্ফোরিত হয়। এতে দুজন নিহত ও ১০ জন আহত হয়। আর গজনি প্রদেশে কেন্দ্রে রাস্তার পাশে পুঁতে রাখা বোমা বিস্ফোরণে দুই বেসামরিক মানুষ নিহত হন।

কুন্দুজ প্রদেশের একজন বাসিন্দা আফগানিস্তানের সংবাদমাধ্যম টিওএলও নিউজকে বলেন, ঘটনার ৪০ মিনিট পর নিরাপত্তা বাহিনীর লোকজন ঘটনাস্থলে আসেন। অথচ সেখান থেকে পুলিশ সদর দপ্তর মাত্র ১০০ মিটার দূরে।

আরেকজন বাসিন্দা টিওএলও নিউজকে বলেন, ‘একজন মুসলিম কখনো আরেকজন মুসলিমের ওপর হামলা চালাতে পারে না। দারিদ্র্য ও দুর্দশার মধ্যে আমরা আমাদের সন্তানদের বড় করছি। অথচ তারা কি সহজে এসব হামলার শিকার হচ্ছে। তারা যদি মুসলিম হতো, তাহলে শিশুদের প্রতি এত নৃশংস হতে পারত না।’

ঈদ উপলক্ষে গত সোমবার দেশটিতে তিন দিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করে তালেবান। এ নিয়ে তালেবান একটি বিবৃতি দেয়। এরই মধ্যে গতকাল বুধবার রাজধানী কাবুলের কাছে ‘আচমকা হামলা’ চালিয়ে নেরখ জেলাটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় এই জঙ্গিগোষ্ঠী। এক সপ্তাহের মধ্যে এটি দ্বিতীয় শহর, যা তালেবান দখলে নিল।। ৫ মে জঙ্গিগোষ্ঠীটি দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ বাঘলানের বোরকা জেলার নিয়ন্ত্রণ নেয়।

সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ঘোষণা অনুযায়ী আফগানিস্তান থেকে মার্কিন ও ন্যাটো বাহিনী প্রত্যাহারের প্রস্তুতি শুরুর পর থেকে দেশটিতে সহিংসতার ঘটনা বেড়েছে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন