আফগান কারাগারে আইএসের হামলায় নিহত ২৯

বিজ্ঞাপন
default-image

আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় জালালাবাদ শহরের একটি কারাগারে জঙ্গি হামলায় অন্তত ২৯ জন নিহত হয়েছে। গতকাল সোমবার দ্য নিউইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

গত রোববার রাতে কারাগারে হামলা শুরুর পর আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে জঙ্গিদের প্রায় ২০ ঘণ্টা ধরে বন্দুকযুদ্ধ চলে। রাতভর সংঘাতের পর গতকাল এই হামলার অবসান ঘটে।

নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘাতে ১০ হামলাকারী নিহত হয়েছে।

হামলার দায় স্বীকার করেছে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস)। আইএসের প্রতিপক্ষ তালেবানের ভাষ্য, তারা এই হামলার জন্য দায়ী নয়।

জালালাবাদ শহরটি নানগারহার প্রদেশের রাজধানী। প্রাদেশিক গভর্নরের এক মুখপাত্র বলেন, হামলায় ২৯ জন নিহত হয়েছে। আহত ৪৮ জন। হতাহত হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে বেসামরিক লোকজন, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য ও কয়েদি রয়েছে। আহত ব্যক্তিদের স্থানীয় হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

রোববার রাতে কারাগারটির প্রবেশমুখে প্রথম হামলা চালায় বন্দুকধারীরা। হামলার সময় কারাগার থেকে পালানোর চেষ্টা করে হাজারো কয়েদি। এই কয়েদিদের মধ্যে আইএস ও তালেবানের সদস্যও আছে।

হামলার জেরে প্রায় ৩০০ কয়েদি কারাগার থেকে পালিয়েছে বলে ধারণা কর্তৃপক্ষের।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানায়, হামলার সময় ওই কারাগারে ১ হাজার ৭০০ জনেরও বেশি কয়েদি ছিল। তাদের অধিকাংশই তালেবান ও আইএসের সদস্য।

কারাগার থেকে সুনির্দিষ্ট কোনো কয়েদিকে মুক্ত করার জন্য এই হামলা চালানো হয়েছিল কি না, তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

নিরাপত্তা বাহিনীর অভিযানের মধ্যে ঘটনাস্থলে যান আফগান সেনাপ্রধান জেনারেল ইয়াসিন জিয়া। পরে তিনি বলেন, জঙ্গি হামলায় ১০ জন বন্দুকধারী অংশ নিয়েছিল। তারা সবাই নিহত হয়েছে।

আফগান সরকার ও তালেবানদের মধ্যে সংক্ষিপ্ত যুদ্ধবিরতি চলাকালেই রোববার আইএসের পক্ষ থেকে এ হামলা চালানো হয়।

আফগান সরকার ও তালেবানের মধ্যে সাময়িক যুদ্ধবিরতির তৃতীয় ও শেষ দিনে এই হামলার ঘটনা ঘটল। শান্তি আলোচনায় অগ্রগতির লক্ষ্যে ইতিমধ্যে কয়েক শ তালেবান বন্দীকে মুক্তি দিয়েছে আফগান সরকার।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন