গোতাবায়া পালিয়ে যাওয়ায়, তাঁর কোনো বিচার না হওয়ায় আক্ষেপ প্রকাশ করেন এই বিক্ষোভকারী।

গোতাবায়া গতকাল মঙ্গলবার রাতে একটি সামরিক উড়োজাহাজে মালদ্বীপ গেছেন বলে নিশ্চিত করেছেন অভিবাসন কর্মকর্তারা।

অভিবাসন কর্মকর্তারা জানান, গোতাবায়া, তাঁর স্ত্রী, একজন দেহরক্ষীসহ চার যাত্রীকে নিয়ে একটি সামরিক উড়োজাহাজ গতকাল মধ্যরাতে শ্রীলঙ্কার বন্দরনায়েক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে মালদ্বীপের উদ্দেশে যাত্রা করে।

শ্রীলঙ্কায় অবস্থানরত মালদ্বীপের এক যুবক এ খবরের প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এটি খুবই বিব্রতকর। এটি ভালো নয়। এমনকি মালদ্বীপও দুর্নীতিগ্রস্ত দেশ। মালদ্বীপও একই পথে চলছে।

গোতাবায়া দেশ ছাড়ায় খুশি শ্রীলঙ্কার বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষার্থী রেশিনি। তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি, তিনি (গোতাবায়া) একজন সন্ত্রাসীর মতো। তিনি এত দিন দেশে সন্ত্রাস কায়েম করেছেন। তাই তিনি চলে যাওয়ায় আমি খুশি। কিন্তু শ্রীলঙ্কার পরিস্থিতির জন্য আমি দুঃখিত।’

শ্রীলঙ্কা অভূতপূর্ব অর্থনৈতিক সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে। এই সংকটের প্রেক্ষাপটে গত মার্চ মাসে হাজারো মানুষ রাজপথে নেমে আসেন। তাঁরা লাগাতার বিক্ষোভ দেখিয়ে আসছেন।

গত শনিবার শত শত বিক্ষোভকারী গোতাবায়ার বাসভবনে ঢুকে পড়েন। এদিন রাতে পদত্যাগের ঘোষণা দেন গোতাবায়া। ঘোষণা অনুযায়ী, আজ বুধবার তাঁর পদত্যাগ করার কথা।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন