ইরাকের তিকরিতে প্রায় ১০০ জন সুন্নি মুসলিম উপজাতিকে অপহরণ করেছে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)। স্থানীয় উপজাতি নেতারা এ তথ্য জানান।

কিছুদিন ধরে ইরাকি বাহিনী এবং সরকারপন্থী শিয়া মিলিশিয়ারা আইএসের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে তিকরিতের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলে জমায়েত হচ্ছে।
ধারণা করা হচ্ছে, ওই অভিযান প্রতিরোধে করতেই তারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। খবর রয়টার্সের।
উপজাতি নেতারা বলেন, গতকাল মঙ্গলবার আইএসের যোদ্ধারা ৪২ জন সুন্নি উপজাতিকে রুবাইদা গ্রাম থেকে ধরে নিয়ে যায়। এর আগে গত সপ্তাহে তারা ৫৬ জনকে অপহরণ করে।

অপহরণ হওয়া ব্যক্তিরা আইএসের বিরুদ্ধে অভিযানে অংশ নিতে পারেন, ওই সন্দেহ থেকে তাঁদের অপহরণ করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
হাতেম আল ওবেইদি নামে ওই গ্রামের একজন পালিয়ে যাওয়া বাসিন্দা জানান, ‘জঙ্গিরা ঘরে ঘরে ঢুকে মুঠোফোন তল্লাশি করতে থাকে। মুঠোফোনে আইএসবিরোধী কিছু পাওয়া যাবে, এমন সন্দেহ থেকে তারা মুঠোফোনের সব তথ্য খুঁজে দেখে।’
গত সপ্তাহে আইএস জঙ্গিরা সরকারপন্থী সুন্নি মিলিশিয়াদের সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে, এমন অভিযোগে ৫৬ জনকে আটক করে। রুবাইদা গ্রাম থেকে পালিয়ে যাওয়া আবু কারেন ওবেইদি নামের এক ব্যক্তি এ তথ্য জানান। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তাঁরা বেশ কিছু গাড়ির বহর ইরাকের উত্তরাঞ্চলের দিকে যেতে দেখেছেন। তাঁদের ধারণা, আইএসের সদস্যরা অপহরণ করা ব্যক্তিদের নিয়ে তাদের নিয়ন্ত্রিত মসুল শহরের দিকে যাচ্ছে।

বিজ্ঞাপন
এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন