default-image

জাপানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তোশিমিৎসু মোতেগি আজ প্রচারিত এক বার্তায় জাপান ও সারা বিশ্বের ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের প্রতি ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেছেন রোজার মাসে এবং আসন্ন ঈদুল ফিতরের সময় করোনাভাইরাস প্রতিহত করায় সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার জন্য তার নিজের পক্ষ থেকে আন্তরিক শ্রদ্ধাবোধ তিনি তাদের প্রতি ব্যক্ত করছেন।

করোনাভাইরাস জনিত জরুরি অবস্থা চলতে থাকায় অন্যান্য বছরের মতো এবারেরও টোকিওতে বিভিন্ন মুসলিম দেশের রাষ্ট্রদূতদের জন্য বিশেষ ইফতার পার্টির আয়োজন করতে না পারায় দুঃখ প্রকাশ করে তিনি বলেছেন, ইসলামি রাষ্ট্রসমূহের সঙ্গে জাপানের আস্থার সম্পর্কের গভীর মূল্যায়ন তিনি করে থাকেন।

করোনাভাইরাস মহামারির মুখে বৈশ্বিক সংকট চলতে থাকা অবস্থায় সামনে দেখা দেওয়া চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ইসলামি রাষ্ট্রসমূহ সহ আন্তর্জাতিক সমাজের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সহযোগিতা বজায় রাখায় জাপানের ইচ্ছার প্রকাশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোতেগি তার বার্তায় তুলে ধরেছেন।

এদিকে জাপানে করোনা পরিস্থিতি সামাল দেওয়ায় অব্যাহত অগ্রগতির মুখে সরকার এখন আগামী সপ্তাহের শুরুতে রাজধানী টোকিও সহ অবশিষ্ট পাঁচটি জেলা থেকে জরুরি অবস্থা তুলে নেওয়ার ঘোষণা প্রচারের প্রস্তুতি নিচ্ছে। টোকিওতে আজ নতুন সংক্রমণ শনাক্ত করা হয়েছে মাত্র দুটি। ফলে এ নিয়ে চলতি সপ্তাহে পাঁচ দিন ভাইরাস সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ার সংখ্যা ১০এর নিচে সীমিত ছিল। এ ছাড়া আজ শনিবার পর্যন্ত এক সপ্তাহে টোকিওতে নতুন সংক্রমণ শনাক্ত হওয়ার হার প্রতি ১ লাখ জনসংখ্যায় ০.২৯ এর কিছুটা নিচে বজায় থাকে, যে সংখ্যাগত হিসাব হচ্ছে জরুরি অবস্থা তুলে নেওয়ার বেলায় সরকারের নির্ধারিত প্রতি ১ লাখে ০.৫ এর চাইতে অনেক কম।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় এ রকম অগ্রগতির মুখে ধারণা করা হচ্ছে যে প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে আগামী সোমবার সরকারের বিশেষজ্ঞ প্যানেলের সঙ্গে বৈঠক শেষ করে পাঁচটি জেলা থেকে জরুরি অবস্থা তুলে নেওয়ার ঘোষণা দেবেন। এর ফলে সোমবারের পর থেকে জাপানের কোথাও আর জরুরি অবস্থা থাকবে না।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0