বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দীর্ঘদিন কিম জং–উনের উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করার পরে স্টেট অ্যাফেয়ার্স কমিশনের দায়িত্ব পেলেন কিম ইয়ো জং। উত্তর কোরিয়ার সুপ্রিম পিপলস অ্যাসেম্বলি সম্প্রতি দেশটির শীর্ষ পদে বেশ কিছু পরিবর্তন আনে, যার অংশ হিসেবে কিম ইয়ো জং এই পদোন্নতি লাভ করলেন।

স্টেট অ্যাফেয়ার্স কমিশন সংস্কারের অংশ হিসেবে নয়জন সদস্যকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এঁদের মধ্যে কমিশনের সহসভাপতি পাক পং জু এবং জ্যেষ্ঠ নারী কূটনীতিক চো সন হুই রয়েছেন। চো সন হুই উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ পদে থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সমঝোতা বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন।

কিম ইয়ো জং সর্বদাই তাঁর ভাই কিম জং–উনের সান্নিধ্যে থাকতেন। ভাইয়ের সঙ্গে তিনি বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ বিদেশি নেতার সঙ্গে বৈঠকে অংশ নিয়েছেন। এর মধ্যে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জে–ইন।

উত্তর কোরিয়ার রাজনীতিতে কিম ইয়ো জংয়ের ভূমিকা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে নানা জল্পনাকল্পনা চলছিল। কেউ কেউ মনে করেন, তিনি তাঁর ভাইয়ের মতো সফল হবেন এবং তাঁর অবর্তমানে রক্ষণশীল উত্তর কোরিয়ার প্রথম নারী প্রধান হবেন।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন