default-image

ক্ষমতায় টিকে থাকতে জান্তা সরকার মানবতাবিরোধী অপরাধ ঘটাতে পারে বলে সতর্ক করেছেন জাতিসংঘের এক কর্মকর্তা। এরপরই যুক্তরাজ্য মিয়ানমার থেকে  সে দেশের নাগরিকদের চলে যেতে পরামর্শ দিয়েছে। খবর এএফপির।

গত ১ ফেব্রুয়ারি সেনা–অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতায় আসে মিয়ানমারের জান্তা সরকার। এরপর থেকে মিয়ানমারের জনগণ জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ করছে।

মিয়ানমারে নিযুক্ত জাতিসংঘের শীর্ষ মানবাধিকার বিশেষজ্ঞ বলছেন, পুলিশের গুলিতে এ পর্যন্ত মিয়ানমারে ৭০ জনের মতো বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

যুক্তরাজ্য সে দেশে থাকা ব্রিটিশ নাগরিকদের সম্ভব হলে মিয়ানমার ছেড়ে চলে যেতে পরামর্শ দিয়েছে। এর কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, সেনাবাহিনী ক্ষমতা নেওয়ার পর মিয়ানমারে সহিংসতার মাত্রা বাড়ছে ।

ব্রিটিশ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, দ্য ফরেন, কমনওয়েলথ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অফিস খুব জরুরি প্রয়োজন না থাকলে ব্যবসার প্রয়োজনে থাকা ব্রিটিশ নাগরিকদের মিয়ানমার ছেড়ে চলে যেতে পরামর্শ দিয়েছে।

এর আগে মিয়ানমারে নিযুক্ত জাতিসংঘের মানবাধিকারবিষয়ক বিশেষ কর্মকর্তা থমাস অ্যান্ড্রুজ জেনেভায় হিউম্যান রাইটস কাউন্সিলে বলেন, মিয়ানমার এখন হত্যাকারী ও অবৈধ শাসকের দখলে। এ কারণে দেশটিতে মানবতাবিরোধী অপরাধ ঘটতে পারে।

তিনি বলেন, সেনাবাহিনীর প্রধান মিন অং হ্লাইংসহ শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের নির্দেশে মিয়ানমারে হত্যা, গুম, নির্যাতন, নিপীড়নের মতো অপরাধ ঘটতে পারে।

অ্যান্ড্রুজের এই বক্তব্যের পর যুক্তরাজ্য সে দেশের নাগরিকদের সতর্ক করেছে।

গত ১ ফেব্রুয়ারিঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। দেশটির নেত্রী অং সান সু চি ও প্রেসিডেন্ট উইন মিন্টকে আটক করা হয়। একাধিক মামলা দেওয়া হয়েছে তাঁদের নামে। এরপর থেকে জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে এবং গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার দাবিতে মিয়ানমারে বিক্ষোভ চলছে। বিক্ষোভকারীদের সঙ্গেও সহিংস আচরণ করছে জান্তা সরকার।

বিজ্ঞাপন
এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন