চীন ও ভারত সীমান্ত সংঘাতে আর জড়াবে না

বিজ্ঞাপন
default-image

চীন ও ভারত বিতর্কিত সীমান্ত নিয়ে আর সংঘাতে জড়াবে না বলে একমত হয়েছে। হিমালয় সীমান্তে কয়েক দফা সংঘর্ষের পর দুই দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা যৌথ বিবৃতিতে এ কথা জানান। বিবৃতিতে দুই দেশের প্রতিরক্ষা বাহিনীর মধ্যে আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার কথাও বলা হয়।

চলতি সপ্তাহে প্রতিবেশী দেশ দুটি পরস্পরের প্রতি গুলি ছোড়ার অভিযোগ তুলেছে। দুই দেশের মধ্যে প্রায় এক মাস ধরে চলা বিরোধে কমপক্ষে ২০ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।

ভারত ও চীন সীমান্তের দুই পাশে কয়েক হাজার সেনা মোতায়েন রয়েছে।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এএফপির খবরে জানানো হয়, স্থানীয় সময় গতকাল বৃহস্পতিবার রাশিয়ার মস্কোতে এক বৈঠকের পর চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই ও ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুব্রাহ্মানিয়াম জয়শংকর যৌথ বিবৃতিতে জানান, উভয় পক্ষই সহিংস এই পরিস্থিতির অবসান ঘটাতে সম্মত হয়েছে। যৌথ বিবৃতিতে বলা হয়, দুই দেশের সীমান্তবর্তী প্রতিরক্ষা বাহিনীর আলোচনা চালিয়ে যেতে হবে, যত দ্রুত সম্ভব বিরোধ মিটিয়ে ফেলতে হবে। এ ছাড়া সীমান্তবর্তী এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে দুই দেশের বাহিনীর মধ্যে প্রয়োজনীয় দূরত্ব বজায় রাখতে হবে। দুই দেশ পরিস্থিতি খারাপ হয়, এমন আচরণ এড়িয়ে যেতে সম্মত হয়েছে বলেও ওই বিবৃতিতে জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এর আগে সংঘর্ষ চলাকালেও চীন ও ভারত উত্তেজনা কমাতে একই ধরনের আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে। দুই দেশের মধ্যে সীমানা কখনো সঠিকভাবে চিহ্নিত করা যায়নি।

চীন ও ভারতের সীমান্তে ১৯৬২ সালে স্বল্পমেয়াদি যুদ্ধ চলে। ১৯৭৫ সালে এক হামলায় ভারতীয় চার সেনা নিহত হন। এরপর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে সীমান্তবর্তী এলাকায় আর কোনো গোলাগুলি হয়নি।

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন