বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এদিকে হামলার ঘটনার পর একটি ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে হামলার পরপর ট্রেনের বগির জানালা দিয়ে নামতে দেখা যায় আতঙ্কিত যাত্রীদের।

ঘটনাস্থলের কয়েকটি ভিডিও ফুটেজ ও প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, সন্দেহভাজন হামলাকারীর পরনে ছিল উজ্জ্বল বেগুনি ও সবুজ রঙের পোশাক। জনপ্রিয় কমিকস্ ব্যাটম্যানের জোকার চরিত্রের পোশাকের সঙ্গে এর মিল রয়েছে।

জাপানের গণমাধ্যম ইয়োমিউরিকে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘আমি ভেবেছিলাম হ্যালোইন সংক্রান্ত কিছু হচ্ছে। পরে দেখি একজন এই পথ দিয়ে হেঁটে আসছেন। তাঁর হাতে একটি লম্বা ছুরি ছিল।’ প্রত্যক্ষদর্শীরা আরও জানিয়েছেন, হামলাকারী ট্রেনের বগির চারপাশে তরল কোনো পদার্থ ছড়িয়ে দেন। এরপর অগ্নিসংযোগ করেন।

এদিকে হামলায় আহতদের মধ্যে তিনজনের আঘাত গুরুতর বলে জানিয়েছে টোকিওর অগ্নিনির্বাপণ বিভাগ। স্থানীয় কয়েকটি গণমাধ্যমে প্রকাশিত খবরে বলা হয়েছে, ছুরিকাঘাতের শিকার হওয়ার পর অচেতন হয়ে পড়েন বয়স্ক এক ব্যক্তি।

জাপানে সহিংস ঘটনা সচরাচর দেখা যায় না। দেশটিতে কঠোর আগ্নেয়াস্ত্র আইন কার্যকর রয়েছে। তবে টোকিওতে গত আগস্টে একটি কমিউটার ট্রেনে ছুরি নিয়ে হামলার ঘটনায় নয়জন আহত হন। ২০১৯ সালে দেশটিতে বাসের জন্য অপেক্ষা করার সময় আরেক হামলায় স্কুলছাত্রীসহ দুজন নিহত হয়। ওই হামলায় আহত হন কয়েকজন।

এর আগে ২০১৮ সালে জাপানের মধ্যাঞ্চল থেকে একজনকে আটক করে পুলিশ। তিনি বুলেট ট্রেনে ছুরি নিয়ে হামলা চালিয়ে একজনকে হত্যা ও আরও দুজনকে আহত করেছিলেন।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন