বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

টোঙ্গার রাজধানী নুকুআলোফা থেকে ৬৫ কিলোমিটার উত্তরে অবস্থিত ওই আগ্নেয়গিরি। অগ্ন্যুৎপাতের পর রাজধানী পর্যন্ত ছাই উড়ে আসার খবর পাওয়া গেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আপলোড করা ভিডিওতে দেখা গেছে, রাজধানীর বাড়িঘর ও গির্জায় সুনামি আছড়ে পড়ছে।

টোঙ্গার বাসিন্দা মেরে তাউফা বলেন, ‘বাড়িতে রাতের খাবার তৈরির প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। হঠাৎ বিস্ফোরণের বিকট শব্দ পাই। আমার ছোট ভাই ভেবেছিল, আশপাশে কোথাও হয়তো বোমা হামলা হয়েছে।’

টোঙ্গার ভূতাত্ত্বিক বিভাগ জানায়, আগ্নেয়গিরিতে বিস্ফোরণের পর ২০ কিলোমিটার পর্যন্ত গ্যাস, ছাই ও ধোঁয়া পৌঁছে যায়। তবে দ্বীপ রাষ্ট্রটির সঙ্গে যোগাযোগ বিঘ্নিত হওয়ায় হতাহত কিংবা ক্ষয়ক্ষতির তথ্য পেতে বিলম্ব হচ্ছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন