default-image

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হুঁশিয়ার করে দিয়ে ইরান বলেছে, ‘প্রতিশোধ অনিবার্য। সোলাইমানির হত্যাকারী ও আদেশদাতাকে অবশ্যই প্রতিশোধের মুখোমুখি হতে হবে।’

ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনির অফিস থেকে গতকাল বৃহস্পতিবার এক টুইট বার্তায় এই হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। টুইট বার্তার সঙ্গে ট্রাম্পের ছবিও দেওয়া হয়েছে। ছবিতে যুদ্ধবিমানের ছায়ায় ট্রাম্পকে গলফ খেলতে দেখা যায়।

ইরানের রেভল্যুশনারি গার্ডের অভিজাত কুদস ফোর্সের কমান্ডার মেজর জেনারেল কাশেম সোলাইমানিকে গত বছরের জানুয়ারিতে ড্রোন হামলা চালিয়ে হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্র। ট্রাম্পের নির্দেশে ওই হামলা চালানো হয়। সোলাইমানিকে হত্যার পর মার্কিন প্রতিরক্ষা দপ্তর পেন্টাগন জানায়, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশেই সোলাইমানিকে হত্যা করা হয়।

এ হত্যাকাণ্ডের পর থেকেই ট্রাম্পকে হুঁশিয়ারি দিয়ে আসছে ইরান। বৃহস্পতিবারের টুইট বার্তায় আরও বলা হয়, ‘যেকোনো মুহূর্তে প্রতিশোধ নেওয়া হতে পারে।’

বিজ্ঞাপন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ না নিয়ে বুধবার ফ্লোরিডার পাম বিচে নিজের মার-এ-লাগো রিসোর্টে গেছেন ট্রাম্প। হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর সেখানেই থাকা শুরু করেছেন তিনি।

চলতি মাসের শুরুর দিকে ইরানের বিচার বিভাগীয় প্রধান ইব্রাহিম রাইসি হুঁশিয়ারি দেন, সোলাইমানির খুনিরা পৃথিবীর কোথাও নিরাপদে থাকতে পারবে না। তেহরান বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি আরও বলেন, হত্যার নির্দেশদাতা ডোনাল্ড ট্রাম্পও বিচারের আওতার বাইরে থাকবেন না।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন