বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

সূত্রের বরাত দিয়ে সংবাদমাধ্যমটি বলছে, ডিসেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে ভারতে যাবেন পুতিন। গত বছরেই রুশ প্রেসিডেন্টের এ সফরের কথা ছিল। তবে করোনা মহামারির কারণে সে সময় পরিকল্পনা স্থগিত করা হয়। এখন পর্যন্ত ২০টি দ্বিপক্ষীয় সম্মেলনে অংশ নিয়েছে ভারত ও রাশিয়া।

আসন্ন সম্মেলনে দুই দেশ প্রতিরক্ষা, বাণিজ্য, বিনিয়োগ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিসহ নানা ক্ষেত্রে চুক্তি করতে যাচ্ছে বলে জানা গেছে। পাশাপাশি আঞ্চলিক নিরাপত্তা পর্যালোচনা করবে দুই পক্ষ। আলোচনায় আসবে আফগানিস্তান পরিস্থিতিও। এদিকে ডিসেম্বরের সম্মেলনের আগে মস্কোতে দুই দেশের পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বৈঠকে বসতে পারে বলে খবর মিলেছে।

আগামী মাসে ভারতকে এস-৪০০ সরবরাহের বিষয়টিও টাইমস অব ইন্ডিয়াকে জানিয়েছে একটি সূত্র। এস-৪০০ নিয়ে রাশিয়ার সঙ্গে ভারতের চুক্তি হয় ২০১৮ সালে। চুক্তি অনুযায়ী ৫০০ কোটি মার্কিন ডলারের বিনিময়ে আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থার ৫টি ইউনিট পাবে ভারত। এর মধ্যেই ২০১৯ সালে প্রায় ৮০ কোটি ডলার পরিশোধ করা হয়েছে রাশিয়াকে।

রাশিয়ার সবচেয়ে আধুনিক আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থা এস-৪০০। এ ব্যবস্থায় ভূমি থেকে আকাশে দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করা যায়। এর আগে তুরস্কের কাছে এস-৪০০ বিক্রি করেছে রাশিয়া। এর জের ধরে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞায় পড়েছে দেশটি।

সবকিছুর মধ্যে ভারতের আশঙ্কা, আকাশ প্রতিরক্ষাব্যবস্থাটি হাতে পেলে একই ধরনের মার্কিন নিষেধাজ্ঞা আসতে পারে তাদের ওপরেও।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন