default-image

আফগানিস্তানে দক্ষিণ হেলমান্দ প্রদেশে বড় ধরনের হামলা চালিয়েছে তালেবান জঙ্গিগোষ্ঠী। গত ২৪ ঘণ্টায় আফগান নিরাপত্তা বাহিনী ও তালেবানের মধ্যে তীব্র লড়াই চলছে বলে আজ মঙ্গলবার স্থানীয় বাসিন্দা ও কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। ঘোষিত সময়সীমার মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহার না হওয়ার পর দেশটিতে একের পর এক হামলা শুরু করে তালেবান।

চলতি বছরের ১ মের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের কথা ছিল যুক্তরাষ্ট্রের। গত বছর তালেবানের সঙ্গে এক আলোচনায় এ সময়সীমা ঘোষণা করেছিল ট্রাম্প প্রশাসন। তবে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ১ মে থেকে সেনা প্রত্যাহার শুরু করার এবং আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সব সেনা ফিরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেন। সমালোচকেরা বলছেন, মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের এ সিদ্ধান্তে তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতায় ফিরে আসার চেষ্টা করবে।

বিজ্ঞাপন

দক্ষিণ হেলমান্দের রাজধানী লস্কর গাহের শহরতলির এক বাসিন্দা মোল্লা জান বলেন, এখানে বজ্রপাতের মতো ভারী বিস্ফোরণ ঘটছে। খই ফোটার মতো গুলির আওয়াজ শোনা যাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘পরিবারের সবাইকে ঘরের এক কোনায় নিয়ে এসেছি। সেখান থেকে ভারী বিস্ফোরণ আর গুলির শব্দ শুনছি, যেন ঠিক আমাদের দেয়ালের পেছনেই লড়াই চলছে।’

হেলমান্দের প্রাদেশিক কাউন্সিলের প্রধান আতাউল্লাহ আফগান বলেন, গতকার সোমবার তালেবানরা নানা দিক দিয়ে বড় ধরনের হামলা চালায়। লস্কর গাহের বাইরে চেকপয়েন্টগুলোতে হামলা চালায় তাঁরা এবং কয়েকটি চেকপোস্ট দখল করে নেয়।
তিনি আরও বলেন, তালেবানের হামলাকে প্রতিহত করতে ওই এলাকায় বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। তালেবানদের অবস্থানের ওপর বিমান হামলা চালিয়েছে আফগান বাহিনী। তালেবানরা পিছু হটলেও আজও উভয় পক্ষের মধ্যে লড়াই চলে। এ পরিস্থিতিতে কয়েক শ পরিবার ঘরবাড়ি ছেড়ে পালিয়েছে

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন