দুবাইয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশি নিহত

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে দুটি বাসের সংঘর্ষে পাঁচজন নিহত হয়েছেন। তাঁদের তিনজন বাংলাদেশি ও দুজন ভারতীয় নাগরিক।

আজ রোববার সকালে দুবাইয়ের আল রাবাত সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুবাইভিত্তিক খালিজ টাইমসের প্রতিবেদনে এ কথা বলা হয়েছে। ​প্রতিবেদনে বলা হয়, নিহত তিন বাংলাদেশির মধ্যে একজনের নাম মুদাসিসি (৪৯)। তাঁর বাড়ি শরিয়তপুর জেলায়।

দুর্ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে যায় এবং আহতদের রশিদ হাসপাতালে ভর্তি করে। আহত সাতজনের মধ্যে তিনজনের অবস্থা গুরুতর।

রশিদিয়া পুলিশ স্টেশনের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার সা​ইদ বিন সুলেমানের উদ্ধৃতি দিয়ে খালিজ টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, ক্লিনকো ক্লিনিং সার্ভিসেস অ্যান্ড বিল্ডিং মেইনটেন্যান্স নামের একটি কোম্পানির বাস প্রতিষ্ঠানটির ১৯ জন কর্মী ও শ্রমিকদের নিয়ে যাচ্ছিল। আল রাবাত সড়কে ওই বাসটির সঙ্গে অপর একটি বাসের সংঘর্ষ হয়। দুবাই ফেস্টিভ্যাল সিটির একটি ভবনে কাজ করতে যাচ্ছিলেন ওই কোম্পানির কর্মী ও শ্রমিকেরা। কর্মস্থল থেকে মাত্র এক কিলোমিটার দূরে দুর্ঘটনাটি ঘটে।

নিহত শ্রমিকদের বন্ধু ও সহকর্মীরা খালিজ টাইমসকে জানিয়েছেন, দুর্ঘটনাটি​ যখন ঘটে তখন কোস্টারটিতে ১৯ জন কর্মী ও শ্রমিক ছিলেন। এ ঘটনায় গাড়িটির চালক আহত হননি। তাঁরা দুবাই ফেস্টিভ্যাল সিটিতে কাজ করার জন্য যাচ্ছিলেন।

নিহত তিন বাংলাদেশির একজন শরিয়তপুরের মুদাসিসির ছেলে ফেরদৌসও দুবাই প্রবাসী। তিনি খালিজ টাইমসকে বলেন, ‘এ ঘটনায় আমার দুঃখ প্রকাশের ভাষা নেই। আমি জানি না কী করব। তবে আমি ইতিমধ্যে বাড়িতে আমার পরিবারকে ঘটনাটি জানিয়েছি।’

পুলিশ কর্মকর্তা সাইদ বিন সুলেমান বলেন, ‘ভোর পাঁচটায় দুবাইয়ের পুলিশ ওই দুর্ঘটনার খবর পায়। এর পরপরই টহল পুলিশ ও উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। চারজন শ্রমিক ঘটনাস্থলেই মারা যান। গুরুতর আহত অপর এক শ্রমিক হাসপাতালে মারা যান। উদ্ধার কার্যক্রমের বর্ণনা দিয়ে তিনি বলেন, হাইড্রলিক কাটার ব্যবহার করে দুর্ঘটনাকবলিত বাসে আটকে পড়া হতাহতদের উদ্ধার করা হয়।