নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে ঘুষের অভিযোগ

বিজ্ঞাপন
default-image

দুর্নীতির মামলায় অভিযুক্ত হলেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু। ঘুষ, প্রতারণা ও বিশ্বাস ভঙ্গের পৃথক তিন মামলায় তাঁকে অভিযুক্ত করেছেন ইসরায়েলের অ্যাটর্নি জেনারেল। আজ শুক্রবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

ইসরায়েলে নেতানিয়াহুই প্রথম প্রধানমন্ত্রী, যিনি ক্ষমতায় থাকা অবস্থায় এমন অভিযোগের সম্মুখীন হলেন।

ইসরায়েলের অ্যাটর্নি জেনারেল আভিচাই ম্যানডেলব্লিৎ গতকাল বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে এ-সংক্রান্ত ঘোষণা দেন।

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ধনাঢ্য ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে উপহার নিয়েছেন। গণমাধ্যমের কাছ থেকে অধিকতর ইতিবাচক প্রচার পেতে অবৈধ রাষ্ট্রীয় সুবিধা নিয়েছেন।

অভিযোগ অস্বীকার করেছেন নেতানিয়াহু। তিনি তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ ষড়যন্ত্র ও অভ্যুত্থানচেষ্টা বলে বর্ণনা করেছেন।

default-image

অভিযোগ ওঠার পরও পদত্যাগ করবেন না বলে জানিয়েছেন নেতানিয়াহু। পদত্যাগে আইনি কোনো বাধ্যবাধকতাও নেই বলে মন্তব্য তাঁর।

টেলিভিশনে দেওয়া বক্তব্যে নেতানিয়াহু বলেন, ‘কর্তৃপক্ষ সত্যের পেছনে নয়, বরং আমার পেছনে লেগেছে।’

তদন্ত যাঁরা করেছেন, তাঁদের বিষয়ে অনুসন্ধানে ইসরায়েলের নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানান নেতানিয়াহু।

ইসরায়েলের অ্যাটর্নি জেনারেল বলেছেন, তিনি ভারাক্রান্ত হৃদয়ে নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে অভিযোগ আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এই সিদ্ধান্ত প্রমাণ করে, ইসরায়েলে কেউই আইনের ঊর্ধ্ব নন।

ইসরায়েলে সরকার গঠন নিয়ে চলমান রাজনৈতিক অচলাবস্থার মধ্যে দুর্নীতির অভিযোগে পেঁচিয়ে গেলেন নেতানিয়াহু। এ ঘটনায় তাঁর ভবিষ্যৎ নিয়ে অনিশ্চয়তা সৃষ্টি হলো। 

বিজ্ঞাপন
মন্তব্য পড়ুন 0
বিজ্ঞাপন