বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দণ্ডাদেশ পাওয়া ওই ব্যক্তির নাম আলী আবু লুহুম (৩৮)। আদালত রায়ে বলেন, সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে ধর্মত্যাগ, অবিশ্বাস ও নাস্তিকতার পক্ষে প্রচার চালিয়েছেন তিনি। এ কাজে বেনামে দুটি টুইটার অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করা হয়েছে। অ্যাকাউন্টগুলোর সঙ্গে লুহুমের ফোন নম্বর যুক্ত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেছে।
এইচআরডব্লিউ বলছে, আবু লুহুমের বিরুদ্ধে ‘সৃষ্টিকর্তার অস্তিত্ব অস্বীকার’ করার অভিযোগও আনা হয়। পাশাপাশি তিনি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ধর্মীয় মূল্যবোধ, শৃঙ্খলা ও নৈতিকতাবিদ্বেষী বিষয়বস্তু প্রকাশ করেছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

সাজাপ্রাপ্ত আবু লুহুমকে সৌদি আরবের নাজরান শহরের একটি কারাগারে বন্দী রাখা হয়েছে। শহরটির অবস্থান ইয়েমেন সীমান্তের কাছে। এদিকে সাজার বিষয়টি সামনে আসার পর এ নিয়ে তাত্ক্ষণিক কোনো মন্তব্য করেনি রিয়াদ।

এইচআরডব্লিউ বলে, গত অক্টোবরে ওই বিচারকাজ সম্পন্ন হয়। রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল হয়েছে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন