বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

এর মধ্যেই আজ মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে সতর্কবার্তা জারি করা হলো। সেখানে নিরাপত্তাজনিত হুমকির কথা উল্লেখ করে মার্কিন নাগরিকদের রাজধানী কাবুলের সেরেনা হোটেল এবং এর আশপাশের এলাকা থেকে সরে যেতে বলা হয়েছে।

অপর একটি সতর্কতবার্তায় ব্রিটেনের ফরেন, কমনওয়েলথ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অফিসের পক্ষ দেশটির নাগরিকদের আফগানিস্তান বিশেষ করে কাবুলের হোটেলগুলো থেকে নাগরিকদের সরে যেতে বলা হয়।

কাবুলের বিলাসবহুল হোটেলগুলোর মধ্যে একটি সেরেনা। এর আগেও হোটেলটি দুইবার হামলার শিকার হয়েছে। তবে সেসব হামলার পেছনে হাত ছিল তালেবানের। ২০১৪ সালে আফগানিস্তানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে হোটেলটিতে এক হামলায় নয়জন নিহত হন। তাঁদের মধ্যে এএফপির এক সাংবাদিক এবং তাঁর পরিবারের সদস্যরাও ছিলেন। এর আগে ২০০৮ সালে এক আত্মঘাতী বোমা হামলায় ছয়জন নিহত হন।

গত শুক্রবার আফগানিস্তানের কুন্দুজ শহরের একটি মসজিদে বোমা হামলায় ৫০ জনের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়। আহত হয় আরও অনেকে। আফগানিস্তান থেকে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন বিদেশি সেনা প্রত্যাহারের পর সবচেয়ে বড় রক্তক্ষয়ী হামলার ঘটনা ছিল সেটি। পরে আইএস এ হামলার দায় স্বীকার করে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন