default-image

নরম খোলের দৈত্যাকৃতি কচ্ছপের সুইনহো প্রজাতি প্রায় বিপন্নের পথে। এত দিন এই প্রজাতির একমাত্র পুরুষ কচ্ছপের উপস্থিতি দেখা মিলত পৃথিবীতে। অবশেষে ওই প্রজাতির একটি স্ত্রী কচ্ছপের সন্ধান পাওয়া গেছে ভিয়েতনামে। ফলে ওই পুরুষ কচ্ছপের নিঃসঙ্গতার দিন শেষ হতে যাচ্ছে।

গত শুক্রবার এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ করে যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান। খবরে বলা হয়েছে, গত অক্টোবরে ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ের সন তাই জেলার ডং মো হ্রদে ৮৬ কেজি ওজনের ওই স্ত্রী কচ্ছপটির সন্ধান পাওয়া যায়। জিনগত পরীক্ষা করে দেখার জন্য প্রাণীটিকে ধরা হয়। পরে গবেষকেরা নিশ্চিত হন, প্রাণীটি সুইনহোর নরম খোলের কচ্ছপের স্ত্রী প্রজাতি।

একই হ্রদে ১৩০ কেজি ওজনের আরেকটি কচ্ছপকে ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে। প্রাণী সংরক্ষণবিদদের আশা, ওই প্রাণীও সুইনহো প্রজাতির আরেকটি স্ত্রী কচ্ছপ হতে পারে।

বিজ্ঞানীরা বলেছেন, ওই প্রজাতির কচ্ছপের বৈজ্ঞানিক নাম রাফেটাস সুইনহো। এই প্রজাতি হুয়ান কিয়েম বা ইয়াংচি জায়ান্ট সফটশেল টার্টল নামেও পরিচিত। বিশ্বের সবচেয়ে বিপন্ন প্রজাতির কচ্ছপ এটি। ওই একই হ্রদে ১৩০ কেজি ওজনের আরেকটি কচ্ছপকে ঘোরাঘুরি করতে দেখা গেছে। প্রাণী সংরক্ষণবিদদের আশা, ওই প্রাণীও সুইনহো প্রজাতির আরেকটি স্ত্রী কচ্ছপ হতে পারে। তবে তার আগে কচ্ছপটিকে ধরে পরীক্ষা করে দেখতে হবে গবেষকদের।

বিজ্ঞাপন

পৃথিবীতে দেখা যাওয়া নরম খোলের সুইনহো প্রজাতির একমাত্র পুরুষ কচ্ছপটির বসবাস চীনের সুজহু চিড়িয়াখানায়। এখন বিজ্ঞানীদের লক্ষ্য হচ্ছে তার সঙ্গে নতুন করে খোঁজ পাওয়া স্ত্রী কচ্ছপকে একসঙ্গে রেখে প্রজননের ব্যবস্থা করা। এতে বিলুপ্তির খাদের কিনারে থাকা প্রজাতিটিকে রক্ষা করা যাবে। খাবার হিসেবে ব্যবহারের জন্য নির্বিচারে শিকার ও আবাসস্থল ধ্বংসের কারণে এই প্রজাতির কচ্ছপ এখন বিলুপ্তির মুখে।

বৈশ্বিক কচ্ছপ রক্ষার জোট টার্টল সারভাইভাল অ্যালায়েন্সের গবেষক অ্যান্ড্রু ওয়াল্ড বলেছেন, সুইনহো প্রজাতির কচ্ছপকে বৈশ্বিকভাবে সংরক্ষণের জন্য এই স্ত্রী কচ্ছপের সন্ধান এ বছরের জন্য সবচেয়ে ভালো খবর। কচ্ছপটির প্রজাতি সংরক্ষণের জন্য একটি প্রকল্প হাতে নিতে ভিয়েতনাম সরকারকে অনুরোধ করেছেন তিনি।

ওয়াইল্ডলাইফ কনজারভেশন সোসাইটির ভিয়েতনামের কান্ট্রি ডিরেক্টর হোয়াইতং বিচ থুই বলেছেন, ২০২০ সালের পুরোটাই ছিল খারাপ ও দুঃখের খবরে ভরা। এসবের মধ্যে বিপন্ন প্রজাতির স্ত্রী কচ্ছপের সন্ধান একটি ভালো খবর।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন