বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

দুর্নীতির মামলায় ২০১৯ সালে নেতানিয়াহুকে অভিযুক্ত করা হয়। তিনি তখন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন। ইসরায়েলে নেতানিয়াহুই প্রথম ব্যক্তি, যিনি প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্ত হন। অভিযুক্ত হওয়ার পরও তিনি প্রধানমন্ত্রী পদ ছাড়েননি।

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে অভিযোগ হলো—তিনি ধনাঢ্য ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে উপহার নিয়েছেন। গণমাধ্যমের কাছ থেকে অধিকতর ইতিবাচক প্রচার পেতে তিনি মিডিয়া মোগলদের অবৈধ রাষ্ট্রীয় সুবিধা দিয়েছেন।

শুরু থেকেই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন নেতানিয়াহু। তাঁর ভাষ্য, অভিযোগগুলো ষড়যন্ত্রমূলক।

নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে বেজেক মামলা সবচেয়ে গুরুতর বলে বিবেচিত হচ্ছে। বেজেক টেলিকমিউনিকেশন গ্রুপের সঙ্গে নেতানিয়াহুর লেনদেনের বিষয়টি তাঁর সাবেক মুখপাত্র নির হেফেৎজের সাক্ষ্যে উঠে আসবে বলে আশা করা হচ্ছে।

নেতানিয়াহুর আইনজীবীরা যুক্তি দিয়েছেন, হেফেৎজের সাক্ষ্য খণ্ডন করতে তাঁরা অপ্রস্তুত।

সরকারি আইনজীবীরা বলেছেন, হেফেৎজের কাছে যে তথ্য-প্রমাণ আছে, তা সম্প্রতি ফাঁস হওয়ায় তাঁরা অনুতপ্ত। তা সত্ত্বেও তাঁর সাক্ষ্যগ্রহণ করা উচিত।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন