default-image

ইরানের শীর্ষ পরমাণুবিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদেহ হত্যার পেছনে সশস্ত্র বাহিনীর এক সদস্য জড়িত বলে সন্দেহ করছে তেহরান। দেশটির গোয়েন্দা দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী মাহমুদ আলাভি সোমবার এ তথ্য দেন।

মাহমুদ আলাভির বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, হত্যাকাণ্ডের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া প্রথম ব্যক্তিটি সশস্ত্র বাহিনীর একজন সদস্য।

তবে ইরানের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওই ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেননি মাহমুদ আলাভি। সাক্ষাৎকারে তিনি আরও বলেন, গোয়েন্দা মন্ত্রণালয়ের পক্ষে সশস্ত্র বাহিনীর ওপর নজর রাখা সম্ভব ছিল না।

বিজ্ঞাপন

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গত নভেম্বরে ইরানের রাজধানী তেহরানের কাছে ফাখরিজাদেহের গাড়ি লক্ষ্য করে প্রথমে বোমা হামলা চালানো হয়, এরপর গুলি করা হয়। তিনি দামাভান্দ এলাকার অ্যাবসার্দের একটি হাসপাতালে মারা যান।

ইরানের রেভল্যুশনারি গার্ডের বরাত দিয়ে এএফপির খবরে বলা হয়, স্যাটেলাইট নিয়ন্ত্রিত ‘কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার’র আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে গুলি করা হয় ফাখরিজাদেহকে। এই হামলার জন্য তেহরান ইসরায়েলকে দায়ী করেছে। তবে ইসরায়েল এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন