বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

পাকিস্তানি কর্মকর্তারা বলছেন, সিলসিলার বয়স প্রায় ২০। তিনি একটি গাড়িতে ছিলেন। অপহরণকারীরা তাঁর গাড়িতে ঢুকে পড়ে। অপহরণের পর তাঁকে মারধর করে।

মেয়েকে অপহরণ ও মারধর করার ঘটনাকে ‘বর্বর হামলা’ হিসেবে অভিহিত করেছেন আফগান রাষ্ট্রদূত নাজিব আলিখিল। তিনি এ ঘটনার নিন্দা জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রদূত নাজিব আলিখিল জানিয়েছেন, তাঁর মেয়ে এখন ভালো বোধ করছেন।

আফগানিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। কাবুলে নিযুক্ত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে তলব করে এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক অভিযোগ জানিয়েছে আফগানিস্তান।

একই সঙ্গে পাকিস্তানি কর্তৃপক্ষের কাছে আফগান কূটনীতিক ও তাঁদের পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছে কাবুল।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তারা আফগান রাষ্ট্রদূত ও তাঁর পরিবারের জন্য নিরাপত্তা জোরদার করেছে। এ ঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ।

পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ আহমেদ বলেছেন, অপরাধীরা যাতে দ্রুত ধরা পড়ে, সে ব্যাপারে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

সম্প্রতি পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটেছে।

আফগান সরকারের অভিযোগ, তালেবানকে আশ্রয়-প্রশ্রয় দিচ্ছে পাকিস্তান।অন্যদিকে পাকিস্তানের অভিযোগ, আফগানিস্তানের মাটি ব্যবহার করে পাকিস্তানে জঙ্গি হামলা চালানোর বিষয়টি প্রশ্রয় দিচ্ছে কাবুল।

উভয় দেশই পরস্পরের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন