default-image

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হয়—এমন একটি হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডে কমপক্ষে ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। আগুন থেকে সৃষ্ট ধোঁয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বেশ কয়েকজন। স্থানীয় সময় গতকাল শনিবার রাতে ইবনে খতিব হাসপাতালে ওই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। খবর বিবিসির।

অক্সিজেনের একটি ট্যাংক বিস্ফোরিত হয়ে আগুন লাগে বলে জানা গেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা গেছে, অগ্নিনির্বাপণকর্মীরা আগুন নেভানোর চেষ্টা করছেন। অনেকেই ওই ভবন ছেড়ে পালিয়ে গেছেন।

ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল কাদহিমি অবিলম্বে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি দুর্ঘটনাকে দুঃখজনক বলে অভিহিত করেন। করোনায় সংক্রমিত রোগীদের হাসপাতাল থেকে সরিয়ে নিতে প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

ইরাকের সিভিল ডিফেন্সের প্রধান মেজর জেনারেল কাদহিম বোহান সরকারি গণমাধ্যমকে জানান, হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে আগুন লাগে।

সরকারি সংবাদ সংস্থা আইএনএ তাঁকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, জরুরি উদ্ধারকারী দল ১২০ জন রোগীর মধ্যে ৯০ জন ও তাঁদের স্বজনদের উদ্ধার করেছে। হাসপাতালের একটি সোর্স এএফপিকে জানিয়েছে, নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ৩০ জন রোগী চিকিৎসাধীন ছিলেন।

অগ্নিকাণ্ডে আহত রোগীদের ও ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রোগীদের অ্যাম্বুলেন্সে নিকটবর্তী অন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

ইরাকের সিভিল ডিফেন্স জানিয়েছে, আজ রোববার ভোরের দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে।

বাগদাদের গভর্নর মোহাম্মেদ জাবের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার তদন্তের আহ্বান জানিয়েছেন। কারও অবহেলার কারণে এ ঘটনা ঘটলে তাঁকে বিচারের আওতায় আনা হবে বলে তিনি জানান।

এক বিবৃতিতে সরকারের মানবাধিকার কমিশন বলেছে, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা কোভিড–১৯ রোগীদের সঙ্গে একধরনের অপরাধ। ইরাকে গত ফেব্রুয়ারি থেকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, এ পর্যন্ত ১০ লাখ ২৫ হাজার ২৮৮ জন করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ১৫ হাজার ২১৭ জনের।

গত মাসে ইরাকে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত ৬ লাখ ৫০ হাজার ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞাপন
এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন