default-image

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তৃণমূলের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, বিজেপি অলীক স্বপ্ন দেখছে। এবার বহু কেন্দ্রেই বিজেপির জামানত বাজেয়াপ্ত হবে। মানুষ তো বিজেপিকে ভোট দেয়নি। ভোট পেয়েছে এবং পাবে বাংলার কন্যা মমতার দল তৃণমূল। পশ্চিমবঙ্গের হুগলির খানাকুলে তৃণমূলের রাজ্য বিধানসভার নির্বাচনী জনসভায় আজ রোববার তিনি এসব কথা বলেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘আগে ৫০টি আসনে জিতুক বিজেপি। ওরা তো ইতিমধ্যে হেরে বসে আছে। সামনে আরও হারার দিন। সামনে বহু বিজেপির প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হবে। বিজেপির জন্য অনেকেই এখন দালালি শুরু করেছে। কিছু সরকারি কর্মকর্তাও বিজেপির পক্ষে দালালি করছেন। আর নির্বাচন কমিশনও প্রতিদিন পুলিশ অফিসারদের বদল করছে। কোনো নিয়ম মানছে না। তবু বিজেপি নিজেদের বাঁচাতে পারবে না। বিপুল ভোটে হারবে। এখন শুধু অপেক্ষা ২ মে ফলাফলের ঘোষণার দিন পর্যন্ত।’

বিজ্ঞাপন

মমতা আরও বলেন, ‘মোদিরা আসবেন, ভাঁওতা দেবেন, আবার পালিয়েও যাবেন। তাঁরা তো এই রাজ্যের সবকিছু বিক্রি করে দিচ্ছেন। তাই এই বাংলায় তাঁদের ভোট নেই। ভোট সব এই বাংলার নিজের মেয়ের, মমতার।’

এদিকে মোদির ‘দিদি ও দিদি’ সম্বোধন মেনে নিতে পারছে না তৃণমূল। তৃণমূলের নেত্রী ও রাজ্যের বিদায়ী মন্ত্রী শশী পাঁজা, অভিনেত্রী জুন মালিয়া এবং শিক্ষাবিদ অনন্যা চক্রবর্তী আজ রোববার সকালে কলকাতার তৃণমূল ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ নিয়ে মোদির সমালোচনা করেন। তাঁরা বলেন, টোন কেটে মোদির দিদি ও দিদি সম্বোধন করাকে মেনে নিতে পারছেন না তাঁরা। এটি দিদিকে কটাক্ষ বা তাচ্ছিল্যসহকারে সম্বোধন করা ছাড়া আর কিছু নয়। প্রধানমন্ত্রীর এভাবে একটি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে শ্লেষাত্মক সুরে সম্বোধন করা দুর্ভাগ্যজনক।

এ প্রসঙ্গে বিজেপির নারীনেত্রী অগ্নিমিত্রা পল বলেন, ‘মোদিজি তো তুইতোকারি সম্বোধন করেন না মমতাকে। তাঁকে দিদি বলেই সম্বোধন করেন। বরং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ভারতের প্রধানমন্ত্রীকে “তুই তোকারি” বলতে কুণ্ঠিত হচ্ছেন না।’

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন