default-image

বিয়ের পরিকল্পনা রয়েছে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্নের। তবে এখনো বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক করেননি তিনি। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বুধবার প্লেমাউথে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জেসিন্ডা বলেছেন, ‘আমাদের কিছু পরিকল্পনা আছে। তবে তা কিছুটা দূরে রয়েছে। আমাদের পরিকল্পনাগুলো আরও বিস্তৃতভাবে বাস্তবায়নের আগে পরিবার ও বন্ধুদের জানানোর প্রয়োজন হতে পারে।’

টেলিভিশন উপস্থাপক ক্লার্ক গেফোর্ডের (৪৪) সঙ্গে বাগদান হয়ে গেছেন আরডার্নের (৪০)। তাঁদের দুই বছর বয়সী একটি মেয়েও আছে।

বিজ্ঞাপন

গত মাসে আরডার্নের নেতৃত্বাধীন লেবার পার্টি নিউজিল্যান্ডের সাধারণ নির্বাচনে ভূমিধস জয় পায়। এতে দ্বিতীয় মেয়াদে দেশটির ক্ষমতায় এসেছেন আরডার্ন।

বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন দেশ যখন করোনাভাইরাস ঠেকাতে হিমশিম খাচ্ছে, সেখানে আরডার্ন তাঁর করোনার প্রতিক্রিয়ার জন্য বিশ্বব্যাপী সুনাম কুড়িয়েছেন। গত বছরে দেশটিতে মুসলমানদের ওপর হামলার ঘটনার পর তাঁর গৃহীত পদক্ষেপও আলোচনায় আসে।

২০১৮ সালের জুন মাসে জেসিন্ডা প্রথম সন্তানের জন্ম দেন। বিশ্বের ইতিহাসে প্রধানমন্ত্রীর মতো পদে থেকে মা হওয়ার দ্বিতীয় ঘটনা এটি। পরে নিউইয়র্কের জাতিসংঘের সম্মেলনে তিনি শিশুসহ যোগ দেন।

গত বছরের ১৫ মার্চ ক্রাইস্টচার্চে মুসলমানদের ওপর বন্দুকধারীর হামলার পর তাঁর অবস্থানের জন্য বিশ্বজুড়ে প্রশংসিত হন জেসিন্ডা।

এর আগেও তাঁর একাধিকবার বিয়ের ভুয়া গুঞ্জন উঠেছিল। তবে এবার রয়টার্সকে নিজেই বিয়ের তথ্য দিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য পড়ুন 0