default-image

চীনের সিনোভ্যাক বায়োটেকের তৈরি করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য টিকা ‘করোনাভ্যাক’ মধ্যবর্তী পরীক্ষায় কার্যকর ফল দেখাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানটির গবেষকদের মতে, ৭০০ জনের ওপর পরিচালিত এই পরীক্ষায় টিকাটি দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রতিরোধী ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে।


বিবিসির এক প্রতিবেদনে আজ বুধবার এ তথ্য জানানো হয়েছে। চীনে করোনাভাইরাসের বেশ কয়েকটি টিকা তৈরি হচ্ছে। এর মধ্যে কয়েকটির পরীক্ষামূলক প্রয়োগ এরই মধ্যে শুরু হয়েছে।  


সিনোভ্যাকের টিকার এই ঘোষণা এমন সময় এল, যার আগে ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি তিনটি টিকা শেষ পর্যায়ে কার্যকর ফল দেখাচ্ছে বলে ঘোষণা এসেছে। যুক্তরাষ্ট্র, জার্মান ও রাশিয়া তথ্য-উপাত্ত প্রকাশ করে বলেছে, তাদের টিকা শেষ পর্যায়ের পরীক্ষায় ৯০ থেকে ৯৫ শতাংশ পর্যন্ত কার্যকর ফলাফল দেখাচ্ছে। দেশ তিনটি তাদের টিকাগুলো কয়েক হাজার মানুষের শরীরে প্রয়োগ করেছে।    

বিজ্ঞাপন

এর আগে বিজ্ঞান সাময়িকী দ্য ল্যানসেটে সিনোভ্যকের টিকার প্রথম ও দ্বিতীয় দফার পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ হয়। ওই গবেষণা প্রতিবেদন প্রস্তুতকারীদের একজন ঝু ফেংচাই তখন বলেছিলেন, জরুরি প্রয়োজনে সিনোভ্যাকের তৈরি ‘করোনাভ্যাক’ টিকাটি ব্যবহার উপযোগী। তবে বৃহৎ পরিসরে করা তৃতীয় দফার টিকার ফলাফলের পক্ষে এখনো কোনো পরিসংখ্যান প্রকাশ করা হয়নি। প্রথম দফায় ১৪৪ জন ও দ্বিতীয় দফায় ৬০০ জনের ওপর ‘করোনাভ্যাক’ প্রয়োগ করা হয়।


গত বছরের ডিসেম্বর মাসে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব হয়। এরপর সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে এ ভাইরাস। আজ বুধবার পর্যন্ত সাড়ে পাঁচ কোটির বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১৩ লাখের বেশি মানুষ।

মন্তব্য পড়ুন 0