বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন

গতকাল মঙ্গলবার ফেনস্টারের বিরুদ্ধে নতুন করে অভিযোগগুলো আনা হয়েছে। ১৬ নভেম্বর এ নিয়ে বিচারকাজ শুরু হবে। তাঁর বিরুদ্ধে আগে থেকেই সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধাচরণে উৎসাহ দেওয়া, আইনের বাইরে গিয়ে বিভিন্ন পক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ এবং অভিবাসন আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ রয়েছে। আইনজীবী জ অং বলেন, নতুনভাবে অভিযোগ আনায় ফেনস্টার হতাশ হয়েছেন।

এর আগে গত ১ ফেব্রুয়ারি সেনা অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে অং সান সু চির নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতায় বসে সামরিক জান্তা। এর পর থেকে দেশটিতে শুরু হয় সামরিক সরকারবিরোধী বিক্ষোভ।

স্থানীয় নজরদারি সংস্থাগুলো বলছে, অভ্যুত্থানের পর থেকে ভিন্নমতের বিরুদ্ধে অভিযানে জান্তা বাহিনীর হাতে নিহত হয়েছেন ১ হাজার ২০০ জনের বেশি মানুষ। মিয়ানমারের গণমাধ্যমগুলোকে চাপের মধ্যে রাখা হয়েছে। এর মধ্যে অনেকের লাইসেন্স কেড়ে নেওয়া হয়েছে।

অভ্যুত্থানের পর থেকে শতাধিক সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে নজরদারি সংস্থা এএসইএএন। তাঁদের মধ্যে ৩১ জন এখনো মিয়ানমারে বন্দী বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন
বিজ্ঞাপন
বিজ্ঞাপন