default-image

মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভ আরও বেশি সহিংস হয়ে উঠছে। আজ বৃহস্পতিবার দেশটির উত্তর-পশ্চিম এক শহরে নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে শিকারি বন্দুক ও আগুনবোমা নিয়ে লড়তে দেখা গেছে বিক্ষোভকারীদের। তবে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে আজ ১১ জন বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাতে এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

দেশটির সংবাদমাধ্যম মিয়ানমার নাউ ও ইরাবতি জানায়, ট্যাজ শহরে বিক্ষোভ দমনের জন্য শুরুতে ছয় ট্রাক সেনা মোতায়েন করা হয়। সেখানে তাদের সঙ্গে বন্দুক, ছুরি ও আগুনবোমা নিয়ে লড়াইয়ে নামেন বিক্ষোভকারীরা। এর ফলে আরও পাঁচ ট্রাক সেনা সেখানে পাঠানো হয়।

বৃহস্পতিবার সকালে এ সংঘর্ষ চলাকালে সেনাসদস্যদের গুলিতে অন্তত ১১ জন বিক্ষোভকারী নিহত হন এবং আহত হন আরও ২০ জন। তবে সেনাসদস্যদের হতাহতের বিষয়ে কিছু জানায়নি সংবাদমাধ্যমগুলো।

বিজ্ঞাপন

গত ১ ফেব্রুয়ারি মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করে দেশটির সেনাবাহিনী। এরপর দুই মাস ধরে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভ চালিয়ে আসছেন দেশটির সাধারণ মানুষ। অধিকার সংগঠন অ্যাসিস্ট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনার্স (এএপিপি) জানায়, নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে এখন পর্যন্ত ছয় শতাধিক মানুষ নিহত হয়েছেন।

তাজে শহরের পাশের কাল শহরে গতকাল বুধবার একই ধরনের সংঘর্ষে ১১ জন বিক্ষোভকারী নিহত হন। সেখানে নিরাপত্তা বাহিনী বিক্ষোভকারীদের ওপর গ্রেনেড ও মেশিনগান ব্যবহার করে বলে এএপিপি জানায়।

এশিয়া থেকে আরও পড়ুন
মন্তব্য করুন